ঢাকা ০৩:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

কেন্দ্রীয় ব্যাংককে নজরদারি না বাড়ালে ব্যর্থ হবে সুশাসন

আলোর জগত ডেস্ক :  বিশ্বব্যাংক ভারতের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. জুনায়েদ কামাল আহমাদ বলেছেন,  দেশের ব্যাংকিং খাতে সুশাসন নিশ্চিত করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শক্তিশালী হওয়া জরুরি। কারণ বাংলাদেশ ব্যাংককে শক্তিশালী করার মাধ্যমে নজরদারি আরো না বাড়লে করপোরেট গভর্নেন্স ব্যর্থ হবে। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে ১৮তম নুরুল মতিন মেমোরিয়াল লেকচার ‘ইথিকস ইন ব্যাংকিং’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অর্থনীতিবিদ ড. জুনায়েদ বলেন, এই খাতে নৈতিকতার চর্চা জোরদার করতে রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক শক্তিশালী করতে হবে। একই সঙ্গে নৈতিকতার চর্চা বাড়াতে সুশীল সমাজেরও অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। কারণ তাদের নজরদারি ব্যাংকিং এবং আর্থিক ব্যবস্থাপনায় চেকস অ্যান্ড ব্যালেন্স স্থাপনে সহায়ক হবে।

মূল প্রবন্ধে তিনি বলেন, ব্যাংকিং খাতের নৈতিকতার চর্চা বাড়ানোর জন্য প্রথমে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে শক্তিশালী করা প্রয়োজন। খুব সহজে এর চর্চা চালু করাও কঠিন। এজন্য আর্থিক ব্যবস্থায় আগে পাবলিক পলিসি ও রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক জোরদার করতে হবে। এছাড়া ব্যাংকের গভর্নিং বোর্ড, ম্যানেজমেন্ট এবং কর্মীদের করপোরেট গভর্নেন্স বাস্তবাবায়নে একযোগে কাজ করতে হবে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএম গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

এ সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরদারির সক্ষমতা নিয়মিত বাড়ানো হচ্ছে। সবশেষ প্রযুক্তির ব্যবহারের পাশাপাশি দেয়া হচ্ছে কর্মকর্তাদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ।

দেশের আর্থিক খাতের স্থিতিশীলতার জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একটি আলাদা বিভাগ কাজ করছে বলেও জানান গভর্নর ফজলে কবির।

তিনি বলেন, কিছু অনিয়মের কারণে অর্জনগুলো মলিন হয়ে যায়। তবে ব্যাংকিং খাতের অনিয়মের কারণেই শুধু নয়, কিছু ঋণগ্রহণকারীর উচ্চাকাঙ্ক্ষাও এ খাতের ঝুঁকি তৈরি করছে। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিআইবিএমের মহাপরিচালক আব্দুর রহিম।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

কেন্দ্রীয় ব্যাংককে নজরদারি না বাড়ালে ব্যর্থ হবে সুশাসন

আপডেট টাইম : ০২:৩০:০৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :  বিশ্বব্যাংক ভারতের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. জুনায়েদ কামাল আহমাদ বলেছেন,  দেশের ব্যাংকিং খাতে সুশাসন নিশ্চিত করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শক্তিশালী হওয়া জরুরি। কারণ বাংলাদেশ ব্যাংককে শক্তিশালী করার মাধ্যমে নজরদারি আরো না বাড়লে করপোরেট গভর্নেন্স ব্যর্থ হবে। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে ১৮তম নুরুল মতিন মেমোরিয়াল লেকচার ‘ইথিকস ইন ব্যাংকিং’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অর্থনীতিবিদ ড. জুনায়েদ বলেন, এই খাতে নৈতিকতার চর্চা জোরদার করতে রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক শক্তিশালী করতে হবে। একই সঙ্গে নৈতিকতার চর্চা বাড়াতে সুশীল সমাজেরও অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। কারণ তাদের নজরদারি ব্যাংকিং এবং আর্থিক ব্যবস্থাপনায় চেকস অ্যান্ড ব্যালেন্স স্থাপনে সহায়ক হবে।

মূল প্রবন্ধে তিনি বলেন, ব্যাংকিং খাতের নৈতিকতার চর্চা বাড়ানোর জন্য প্রথমে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে শক্তিশালী করা প্রয়োজন। খুব সহজে এর চর্চা চালু করাও কঠিন। এজন্য আর্থিক ব্যবস্থায় আগে পাবলিক পলিসি ও রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক জোরদার করতে হবে। এছাড়া ব্যাংকের গভর্নিং বোর্ড, ম্যানেজমেন্ট এবং কর্মীদের করপোরেট গভর্নেন্স বাস্তবাবায়নে একযোগে কাজ করতে হবে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএম গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

এ সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরদারির সক্ষমতা নিয়মিত বাড়ানো হচ্ছে। সবশেষ প্রযুক্তির ব্যবহারের পাশাপাশি দেয়া হচ্ছে কর্মকর্তাদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ।

দেশের আর্থিক খাতের স্থিতিশীলতার জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একটি আলাদা বিভাগ কাজ করছে বলেও জানান গভর্নর ফজলে কবির।

তিনি বলেন, কিছু অনিয়মের কারণে অর্জনগুলো মলিন হয়ে যায়। তবে ব্যাংকিং খাতের অনিয়মের কারণেই শুধু নয়, কিছু ঋণগ্রহণকারীর উচ্চাকাঙ্ক্ষাও এ খাতের ঝুঁকি তৈরি করছে। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিআইবিএমের মহাপরিচালক আব্দুর রহিম।