ঢাকা ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :
Logo অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করাকালে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা হতে ০৪ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। Logo ফরিদপুর জেলার মধুখালিতে “শ্যালিকার সঙ্গে পরকীয়ার জেরে দুলাভাইকে হত্যা” শীর্ষক চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার পলাতক আসামি শরিফুল শেখ ও তথি বেগম’কে ফরিদপুরের কোতোয়ালি এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। Logo মুন্সীগঞ্জ জেলার টংগীবাড়ী এলাকা হতে ২৩.৫ কেজি গাঁজাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ Logo গ্রাম পুলিশ সদস্যকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা Logo আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

লোকালয়ে বাঘ, রক্তাক্ত ৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  লোকালয়ে ঢুকে পড়েছিল একটি চিতা বাঘ। আক্রমণ চালিয়ে জখম করে অন্তত ৬ জনকে। বাঘটির ভয়ে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের জলন্ধর জেলা শহরের প্রায় আট লাখ মানুষ গৃহবন্দী হয়ে পড়ে। পরে বন্যপ্রাণী দফতরের কর্মীরা বাঘটিকে ধরতে সক্ষম হলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে শহরের বাসিন্দারা।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শহরের অলি- গলিতে ঘুরছিল হিংস্র চিতাটি। শহরে প্রায় ১১ ঘণ্টা তাণ্ডব চালানোর পর বশে আনা হয় চিতাটিকে। এই সময়ের মধ্যেই ছয়জনকে কামড়েছিল বাঘটি।

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার বাগানের কাছে বাসিন্দাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে চিতা বাঘটি। অনেকেই আবার ভয়ে মাঠ থেকে বাঘটিকে তাড়াতে ঢিলও ছোঁড়ে।

এক ব্যক্তি চিতাকে ধরার জন্য তার ওপর একটি জাল ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করছিলেন, চিতাটি লাফিয়ে মই থেকে ওই ব্যক্তিকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। যাদেরই বাঘটি হামলা করে, সবাই গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন।

বন্যপ্রাণী দফতরের কর্মকর্তাদের ভাষ্য,চিতাটি হিমাচল প্রদেশের পাহাড়ি এলাকা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তারপর ক্ষেত ও বন জঙ্গল পেরিয়ে জলন্ধরে এসে পড়েছে।

বন্যপ্রাণী বিভাগের কর্মীরা প্রাথমিকভাবে জাল ব্যবহার করে বাঘটিকে ধরতে চেষ্টা করে; কিন্তু পরে রাবার বুলেট ছুড়তে বাধ্য হয় তারা।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করাকালে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা হতে ০৪ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০।

লোকালয়ে বাঘ, রক্তাক্ত ৬

আপডেট টাইম : ০৫:৩২:১১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  লোকালয়ে ঢুকে পড়েছিল একটি চিতা বাঘ। আক্রমণ চালিয়ে জখম করে অন্তত ৬ জনকে। বাঘটির ভয়ে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের জলন্ধর জেলা শহরের প্রায় আট লাখ মানুষ গৃহবন্দী হয়ে পড়ে। পরে বন্যপ্রাণী দফতরের কর্মীরা বাঘটিকে ধরতে সক্ষম হলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে শহরের বাসিন্দারা।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শহরের অলি- গলিতে ঘুরছিল হিংস্র চিতাটি। শহরে প্রায় ১১ ঘণ্টা তাণ্ডব চালানোর পর বশে আনা হয় চিতাটিকে। এই সময়ের মধ্যেই ছয়জনকে কামড়েছিল বাঘটি।

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার বাগানের কাছে বাসিন্দাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে চিতা বাঘটি। অনেকেই আবার ভয়ে মাঠ থেকে বাঘটিকে তাড়াতে ঢিলও ছোঁড়ে।

এক ব্যক্তি চিতাকে ধরার জন্য তার ওপর একটি জাল ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করছিলেন, চিতাটি লাফিয়ে মই থেকে ওই ব্যক্তিকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। যাদেরই বাঘটি হামলা করে, সবাই গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন।

বন্যপ্রাণী দফতরের কর্মকর্তাদের ভাষ্য,চিতাটি হিমাচল প্রদেশের পাহাড়ি এলাকা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তারপর ক্ষেত ও বন জঙ্গল পেরিয়ে জলন্ধরে এসে পড়েছে।

বন্যপ্রাণী বিভাগের কর্মীরা প্রাথমিকভাবে জাল ব্যবহার করে বাঘটিকে ধরতে চেষ্টা করে; কিন্তু পরে রাবার বুলেট ছুড়তে বাধ্য হয় তারা।