ঢাকা ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক ফেব্রুয়ারিতে

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :   মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক আগামী মাসের শেষ নাগাদ অনুষ্ঠিত হবে বলে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। উত্তর কোরিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান এবং দেশটির শীর্ষ আলোচক কিম ইয়ং চোলের সঙ্গে ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘ বৈঠকের পর একথা জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ সান্ডার্স। তবে আগামী মাসে বৈঠক হলেও এর তারিখ ও স্থানের বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। দুই শীর্ষ পারমাণবিক শক্তিধর দেশের মধ্যে চলমান টানাপোড়েন নিরসনে এই বৈঠক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গত বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে মিলিত হন চীরশত্রু দুই দেশের প্রধানরা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সেই বৈঠক নিয়ে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছিল। বৈঠকের পর সবচেয়ে বড় পরমাণু পরীক্ষাকেন্দ্র ধ্বংস করে উত্তর কোরিয়া। কিছুদিন যেতে না যেতেই আবারো বিভিন্ন ইস্যুতে দুই দেশের বাগযুদ্ধ শুরু হয়। একদিকে একে অপরকে হুমকি অন্যদিকে বৈঠকের আয়োজন দুটোই চালাতে থাকে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অব্যাহত থাকায় নাখোশ কিম। অপরদিকে পরমাণু অস্ত্র পুরোপরি নিরস্ত্রীকরণ না করা পর্যন্ত তাদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা ওঠানো হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

অনেকদিন থেকেই দুই নেতার দ্বিতীয় বৈঠকের বিষয়টি শোনা গেলেও এতদিন তা হয়ে ওঠেনি। তবে এবারে তাদের বৈঠকের ব্যাপারে অনেকটা নিশ্চিত আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী। কারণ প্রথম বৈঠকের আগে চীন সফরে গিয়েছিলেন উত্তর কোরীয় নেতা কিম। এবারও দ্বিতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে সম্প্রতি আবারো চীন সফর করে এসেছেন কিম জং উন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত।

ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক ফেব্রুয়ারিতে

আপডেট টাইম : ০৬:৩০:৪১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :   মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক আগামী মাসের শেষ নাগাদ অনুষ্ঠিত হবে বলে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। উত্তর কোরিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান এবং দেশটির শীর্ষ আলোচক কিম ইয়ং চোলের সঙ্গে ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘ বৈঠকের পর একথা জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ সান্ডার্স। তবে আগামী মাসে বৈঠক হলেও এর তারিখ ও স্থানের বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। দুই শীর্ষ পারমাণবিক শক্তিধর দেশের মধ্যে চলমান টানাপোড়েন নিরসনে এই বৈঠক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গত বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে মিলিত হন চীরশত্রু দুই দেশের প্রধানরা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সেই বৈঠক নিয়ে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছিল। বৈঠকের পর সবচেয়ে বড় পরমাণু পরীক্ষাকেন্দ্র ধ্বংস করে উত্তর কোরিয়া। কিছুদিন যেতে না যেতেই আবারো বিভিন্ন ইস্যুতে দুই দেশের বাগযুদ্ধ শুরু হয়। একদিকে একে অপরকে হুমকি অন্যদিকে বৈঠকের আয়োজন দুটোই চালাতে থাকে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অব্যাহত থাকায় নাখোশ কিম। অপরদিকে পরমাণু অস্ত্র পুরোপরি নিরস্ত্রীকরণ না করা পর্যন্ত তাদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা ওঠানো হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

অনেকদিন থেকেই দুই নেতার দ্বিতীয় বৈঠকের বিষয়টি শোনা গেলেও এতদিন তা হয়ে ওঠেনি। তবে এবারে তাদের বৈঠকের ব্যাপারে অনেকটা নিশ্চিত আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী। কারণ প্রথম বৈঠকের আগে চীন সফরে গিয়েছিলেন উত্তর কোরীয় নেতা কিম। এবারও দ্বিতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে সম্প্রতি আবারো চীন সফর করে এসেছেন কিম জং উন।