ঢাকা ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

সাইবার অপরাধ থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করল শিক্ষার্থীদের

  • অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : ০৭:২০:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩
  • ৭৩ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন জুয়া, ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং, ফরেক্স মার্কেটিং, হুন্ডিসহ অন্যান্য সাইবার অপরাধে না জড়ানোর জন্য শিক্ষার্থীদের সতর্ক করেছে ঢাকা কলেজ প্রশাসন।
মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয় থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কলেজের একাদশ, দ্বাদশ, অনার্স ও মাস্টার্স শ্রেণির শিক্ষার্থীদের এসব কার্যক্রমে না জড়ানোর জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়।

অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফের সই করা ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন গ্যাম্বলিং, বেটিং, ফরেন এক্সচেঞ্জ, ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং এবং হুন্ডির মাধ্যমে সংঘটিত অবৈধ লেনদেন মাত্রাতিরিক্ত হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিভিন্ন পর্যালোচনায় এসব মাধ্যমে দেশের অর্থ বিদেশে পাচার হওয়ার দৃষ্টান্ত উঠে এসেছে। যা দেশের অর্থনীতির জন্য হুমকিস্বরূপ।

আরও বলা হয়, এসব অবৈধ লেনদেনে জড়িত হয়ে জনগণ বিভিন্নভাবে প্রতারিত হচ্ছে। দেশীয় আইন অনুযায়ী ব্যক্তি পর্যায়ে ডলার কেনাবেচা করা বা বিনিয়োগ করা নিষিদ্ধ। এছাড়া, গ্যাম্বলিং, বেটিং, ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং হন্ডির লেনদেনও বাংলাদেশের অনুমোদিত নয়। এসব ফরেক্স ও ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের ফাঁদে পড়ে তরুণ সমাজসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন তাদের কষ্টার্জিত অর্থ হারাচ্ছে।

তাই কলেজের একাদশ, দ্বাদশ, অনার্স ও মাস্টার্স শ্রেণির শিক্ষার্থীদের উপরোক্ত বিষয়ে না জড়ানো জন্য এবং সচেতন থাকার কথাও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

সাইবার অপরাধ থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করল শিক্ষার্থীদের

আপডেট টাইম : ০৭:২০:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩

অনলাইন জুয়া, ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং, ফরেক্স মার্কেটিং, হুন্ডিসহ অন্যান্য সাইবার অপরাধে না জড়ানোর জন্য শিক্ষার্থীদের সতর্ক করেছে ঢাকা কলেজ প্রশাসন।
মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয় থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কলেজের একাদশ, দ্বাদশ, অনার্স ও মাস্টার্স শ্রেণির শিক্ষার্থীদের এসব কার্যক্রমে না জড়ানোর জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়।

অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফের সই করা ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন গ্যাম্বলিং, বেটিং, ফরেন এক্সচেঞ্জ, ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং এবং হুন্ডির মাধ্যমে সংঘটিত অবৈধ লেনদেন মাত্রাতিরিক্ত হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিভিন্ন পর্যালোচনায় এসব মাধ্যমে দেশের অর্থ বিদেশে পাচার হওয়ার দৃষ্টান্ত উঠে এসেছে। যা দেশের অর্থনীতির জন্য হুমকিস্বরূপ।

আরও বলা হয়, এসব অবৈধ লেনদেনে জড়িত হয়ে জনগণ বিভিন্নভাবে প্রতারিত হচ্ছে। দেশীয় আইন অনুযায়ী ব্যক্তি পর্যায়ে ডলার কেনাবেচা করা বা বিনিয়োগ করা নিষিদ্ধ। এছাড়া, গ্যাম্বলিং, বেটিং, ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং হন্ডির লেনদেনও বাংলাদেশের অনুমোদিত নয়। এসব ফরেক্স ও ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের ফাঁদে পড়ে তরুণ সমাজসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন তাদের কষ্টার্জিত অর্থ হারাচ্ছে।

তাই কলেজের একাদশ, দ্বাদশ, অনার্স ও মাস্টার্স শ্রেণির শিক্ষার্থীদের উপরোক্ত বিষয়ে না জড়ানো জন্য এবং সচেতন থাকার কথাও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।