ঢাকা ১২:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

সারা দেশে ২৫ মার্চ রাতে এক মিনিট ব্ল্যাকআউট: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ছবি

আলোর জগত রিপোর্ট :  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ১৯৭১ সালের গণহত্যা দিবসের স্মরণে আগামী ২৫ মার্চ রাত ৯টা থেকে ৯টা ১ মিনিট পর্যন্ত সারা দেশ অন্ধকারে থাকবে। কালো রাতের স্মরণে ব্ল্যাক-আউট (বাতি নিভিয়ে অন্ধকার) কর্মসূচি পালন করা হবে। গতকাল রবিবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে গণহত্যা দিবস ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বিষয়ক এক সমন্বয় সভা শেষে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস এবং ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস যথাযথভাবে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পালনের জন্য  সারা দেশে নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা যেন সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে নিরাপদে যেতে পারে তার জন্য রাস্তায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। বিদেশি কূটনীতিকদের স্মৃতিসৌধে যাওয়ার সময়ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় পতাকা যেন যথাযথভাবে উড়ানো হয় এবং পতাকার মাপ ও রঙ যেন  ঠিক থাকে তা মনিটরিং করা হবে।

২৬ মার্চের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে জাতীয় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে। সেখানেও থাকবে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এছাড়া ২৬ মার্চ দেশের সব হাসপাতাল, জেলখানা, বৃদ্ধাশ্রম, ভবঘুরে প্রতিষ্ঠান ও শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্রগুলোতে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ এবং সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব, পুলিশের আইজি, আনসারের ডিজি, ডিএমপি কমিশনার, বিজিবি, কোস্টগার্ড ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

সারা দেশে ২৫ মার্চ রাতে এক মিনিট ব্ল্যাকআউট: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট টাইম : ০২:৪০:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০১৯

আলোর জগত রিপোর্ট :  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ১৯৭১ সালের গণহত্যা দিবসের স্মরণে আগামী ২৫ মার্চ রাত ৯টা থেকে ৯টা ১ মিনিট পর্যন্ত সারা দেশ অন্ধকারে থাকবে। কালো রাতের স্মরণে ব্ল্যাক-আউট (বাতি নিভিয়ে অন্ধকার) কর্মসূচি পালন করা হবে। গতকাল রবিবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে গণহত্যা দিবস ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বিষয়ক এক সমন্বয় সভা শেষে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস এবং ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস যথাযথভাবে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পালনের জন্য  সারা দেশে নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা যেন সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে নিরাপদে যেতে পারে তার জন্য রাস্তায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। বিদেশি কূটনীতিকদের স্মৃতিসৌধে যাওয়ার সময়ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় পতাকা যেন যথাযথভাবে উড়ানো হয় এবং পতাকার মাপ ও রঙ যেন  ঠিক থাকে তা মনিটরিং করা হবে।

২৬ মার্চের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে জাতীয় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে। সেখানেও থাকবে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এছাড়া ২৬ মার্চ দেশের সব হাসপাতাল, জেলখানা, বৃদ্ধাশ্রম, ভবঘুরে প্রতিষ্ঠান ও শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্রগুলোতে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ এবং সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব, পুলিশের আইজি, আনসারের ডিজি, ডিএমপি কমিশনার, বিজিবি, কোস্টগার্ড ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।