ঢাকা ০৯:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :   জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার পৃথক বার্তা তারা এ শোক জানান।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের প্রেস অনুবিভাগ থেকে পাঠানো শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, শাহ আলমগীরের মৃত্যু বাংলাদেশের গণমাধ্যম জগতের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। তার নীতি ও আদর্শ সাংবাদিকদের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং জানায়, শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে মরহুমের শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বিশিষ্ট এ সাংবাদিকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

এর আগে আজ সকাল ১০টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহ আলমগীর মারা যান। শাহ আলমগীরের বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে যাওয়াসহ ডায়াবেটিস ও বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

আপডেট টাইম : ০৫:৩২:৫১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :   জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার পৃথক বার্তা তারা এ শোক জানান।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের প্রেস অনুবিভাগ থেকে পাঠানো শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, শাহ আলমগীরের মৃত্যু বাংলাদেশের গণমাধ্যম জগতের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। তার নীতি ও আদর্শ সাংবাদিকদের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং জানায়, শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে মরহুমের শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বিশিষ্ট এ সাংবাদিকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

এর আগে আজ সকাল ১০টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহ আলমগীর মারা যান। শাহ আলমগীরের বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে যাওয়াসহ ডায়াবেটিস ও বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি।