ঢাকা ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

রিয়ালকে উড়িয়ে ফাইনালে বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক :  নতুন ফুটবলের প্রেমে পড়া কোন কচি কিংবা কাঁচা হয়তো এই রিয়ালের  সমর্থন করবে না। চলতি মৌসুমে বার্সার কাছে তিন ম্যাচে নয় গোল খেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। জিততে পারেনি কোন ম্যাচে। লা লিগার প্রথম দেখায় পাঁচ গোল খেয়ে উড়ে যায় তারা। আর বুধবার রাতের ম্যাচে ৩-০ গোলে রিয়ালের মাঠে এসে তাদেরকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সা। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-১ ব্যবধানে কোপা দেল রে’র ফাইনালে উঠে গেছে ভালভার্দের দল।

বুধবার রাতে নিজেদের মাঠে মোটেও খারাপ খেলেনি রিয়াল মাদ্রিদ। বরং আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে বার্সার চেয়ে এগিয়েই ছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু কোনোভাবেই বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগানকে ফাঁকি দিতে পারেনি রিয়ালের ফরোয়ার্ডরা। তবে গোলশূন্য প্রথমার্ধে মুগ্ধ করেছেন ব্রাজিলিয়ান তরুণ তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়র। কিন্তু হয়নি কাজের কাজটি।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ৫০তম মিনিটে গোলের তালা ভাঙেন সুয়ারেজ। বাম পাশ দিয়ে বল নিয়ে উঠে আসা ওসুমানে দেম্বেলের অসাধারণ এক পাস থেকে প্রথম ছোঁয়ায় বার্নাব্যুকে নিস্তব্ধ করে দেন এ উরুগুইয়ান তারকা।

৬৯তম মিনিটে বার্সেলোনাকে গোল উপহার দেন ভারানে। এবারও নায়ক দেম্বেলে এবং সুয়ারেজ। এবার ডানপাশ থেকে সুয়ারেজের উদ্দেশ্যে বল বাড়িয়েছিলেন দেম্বেলে। সেটি মাঝপথে আটকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন ফরাসি ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানে।

এর মিনিট চারেক পর দলের জয় প্রায় নিশ্চিত করেন সুয়ারেজ। এ গোলের পুরো কৃতিত্ব দাবি করতেই পারেন সুয়ারেজ। কেননা ডি-বক্সের মধ্যে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরো তাকে ফাউল করে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সফল স্পট কিকে ম্যাচের নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন সুয়ারেজ। এনিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে ১১ গোল হলো সুয়ারেজের।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত।

রিয়ালকে উড়িয়ে ফাইনালে বার্সা

আপডেট টাইম : ০২:১৪:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক :  নতুন ফুটবলের প্রেমে পড়া কোন কচি কিংবা কাঁচা হয়তো এই রিয়ালের  সমর্থন করবে না। চলতি মৌসুমে বার্সার কাছে তিন ম্যাচে নয় গোল খেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। জিততে পারেনি কোন ম্যাচে। লা লিগার প্রথম দেখায় পাঁচ গোল খেয়ে উড়ে যায় তারা। আর বুধবার রাতের ম্যাচে ৩-০ গোলে রিয়ালের মাঠে এসে তাদেরকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সা। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-১ ব্যবধানে কোপা দেল রে’র ফাইনালে উঠে গেছে ভালভার্দের দল।

বুধবার রাতে নিজেদের মাঠে মোটেও খারাপ খেলেনি রিয়াল মাদ্রিদ। বরং আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে বার্সার চেয়ে এগিয়েই ছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু কোনোভাবেই বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগানকে ফাঁকি দিতে পারেনি রিয়ালের ফরোয়ার্ডরা। তবে গোলশূন্য প্রথমার্ধে মুগ্ধ করেছেন ব্রাজিলিয়ান তরুণ তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়র। কিন্তু হয়নি কাজের কাজটি।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ৫০তম মিনিটে গোলের তালা ভাঙেন সুয়ারেজ। বাম পাশ দিয়ে বল নিয়ে উঠে আসা ওসুমানে দেম্বেলের অসাধারণ এক পাস থেকে প্রথম ছোঁয়ায় বার্নাব্যুকে নিস্তব্ধ করে দেন এ উরুগুইয়ান তারকা।

৬৯তম মিনিটে বার্সেলোনাকে গোল উপহার দেন ভারানে। এবারও নায়ক দেম্বেলে এবং সুয়ারেজ। এবার ডানপাশ থেকে সুয়ারেজের উদ্দেশ্যে বল বাড়িয়েছিলেন দেম্বেলে। সেটি মাঝপথে আটকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন ফরাসি ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানে।

এর মিনিট চারেক পর দলের জয় প্রায় নিশ্চিত করেন সুয়ারেজ। এ গোলের পুরো কৃতিত্ব দাবি করতেই পারেন সুয়ারেজ। কেননা ডি-বক্সের মধ্যে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরো তাকে ফাউল করে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সফল স্পট কিকে ম্যাচের নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন সুয়ারেজ। এনিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে ১১ গোল হলো সুয়ারেজের।