ঢাকা ১১:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

১২ বছরের মধ্যে গুরুতর সঙ্কটে মেরকেল

ফাইল ছবি

জার্মানিতে জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে যে আলোচনা চলছিল তা ভেস্তে গেছে। এতে করে চ্যান্সেলর হিসেবে এক যুগের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল।

মেরকেলের দল সিডিইউ এবং গ্রিন পার্টির সঙ্গে গত চার সপ্তাহ ধরে আলোচনা করেছে এফডিপি। তবে এখন পর্যন্ত সমঝোতায় আসতে পারেনি দলগুলো।

এফডিপি নেতা ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডনার জানান, তাদেরকে বিশ্বাস করার মতো কোনো ভিত্তি নেই। সে কারণে ঠিক কী ঘটতে যাচ্ছে, তা পরিষ্কারভাবে বলা যাচ্ছে না।

তবে প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ারের সঙ্গে মেরকেলের সাক্ষাতের কারণে পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে। পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনের ডাক দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে প্রেসিডেন্টের।

সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে মেরকেলের দল জয়ী হলেও বেশিরভাগ ভোটার মূলধারার দলগুলোর সমর্থন বদলে ফেলেছেন।

মেরকেল জানিয়েছেন, আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি কথা বলতে সোমবারের পরে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্টকে তিনি জানাবেন, আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘একজন চ্যান্সেলর হিসেবে, আগামীতে দুর্দিন আসলে এই দেশ ভালভাবে পরিচালনা করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য আমি সবকিছুই করব।’

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

১২ বছরের মধ্যে গুরুতর সঙ্কটে মেরকেল

আপডেট টাইম : ১২:৩৫:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭

জার্মানিতে জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে যে আলোচনা চলছিল তা ভেস্তে গেছে। এতে করে চ্যান্সেলর হিসেবে এক যুগের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল।

মেরকেলের দল সিডিইউ এবং গ্রিন পার্টির সঙ্গে গত চার সপ্তাহ ধরে আলোচনা করেছে এফডিপি। তবে এখন পর্যন্ত সমঝোতায় আসতে পারেনি দলগুলো।

এফডিপি নেতা ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডনার জানান, তাদেরকে বিশ্বাস করার মতো কোনো ভিত্তি নেই। সে কারণে ঠিক কী ঘটতে যাচ্ছে, তা পরিষ্কারভাবে বলা যাচ্ছে না।

তবে প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ারের সঙ্গে মেরকেলের সাক্ষাতের কারণে পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে। পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনের ডাক দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে প্রেসিডেন্টের।

সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে মেরকেলের দল জয়ী হলেও বেশিরভাগ ভোটার মূলধারার দলগুলোর সমর্থন বদলে ফেলেছেন।

মেরকেল জানিয়েছেন, আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি কথা বলতে সোমবারের পরে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্টকে তিনি জানাবেন, আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘একজন চ্যান্সেলর হিসেবে, আগামীতে দুর্দিন আসলে এই দেশ ভালভাবে পরিচালনা করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য আমি সবকিছুই করব।’