ঢাকা ১০:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

কায়রোতে শান্তি আলোচনার মধ্যেই গাজায় বোমা বর্ষণ ইসরায়েলের

গাজা উপত্যকায় শান্তি স্থাপনে উচ্চপর্যায়ে শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছে মিসরের রাজধানী কায়রোতে। হামাসের উচ্চপর্যায়ের নেতারা সেই আলোচনায় উপস্থিত রয়েছেন।

চলমান সেই শান্তি আলোচনার মধ্যেই গাজার দক্ষিণাঞ্চলে বোমা বর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ফিলিস্তিন শাখা জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনিস এবং তার পার্শ্ববর্তী দেইর আল বালাহে এলাকায় ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর গোলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ৪১ জন ফিলিস্তিনি।

এমনকি শহরের আল আমাল হাসপাতাল চত্বরেও গোলা ফেলেছে ইসরায়েলি বিমান বাহিনী। হাসপাতলটির চত্বরে বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিরা আশ্রয় নিয়েছিলেন।

জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা দপ্তর জানিয়েছে, ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর গোলা বর্ষণে ঘরবাড়ি হারিয়ে সীমান্ত পেরিয়ে মিসরে আশ্রয় নেওয়ার জন্য গত তিন দিনে গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ ক্রসিংয়ে জড়ো হয়েছেন ১ লাখেরও বেশি ফিলিস্তিনি।

শুক্রবার ভোরে রাফাহ ক্রসিংয়েও গোলা বর্ষণ করেছে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। বার্তাসংস্থা এএফপির কাছে থাকা টেলিভিশন ফুটেজে রাফাহ ক্রসিং এলাকায় ধোঁয়ার কুন্ডলি ও আগুন দেখা গেছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রাফাহ ক্রসিংয়ে ইসরায়েলি বাহিনীর বোমা হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশই নারী এবং শিশু।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

কায়রোতে শান্তি আলোচনার মধ্যেই গাজায় বোমা বর্ষণ ইসরায়েলের

আপডেট টাইম : ০৭:০৯:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩

গাজা উপত্যকায় শান্তি স্থাপনে উচ্চপর্যায়ে শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছে মিসরের রাজধানী কায়রোতে। হামাসের উচ্চপর্যায়ের নেতারা সেই আলোচনায় উপস্থিত রয়েছেন।

চলমান সেই শান্তি আলোচনার মধ্যেই গাজার দক্ষিণাঞ্চলে বোমা বর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ফিলিস্তিন শাখা জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খান ইউনিস এবং তার পার্শ্ববর্তী দেইর আল বালাহে এলাকায় ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর গোলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ৪১ জন ফিলিস্তিনি।

এমনকি শহরের আল আমাল হাসপাতাল চত্বরেও গোলা ফেলেছে ইসরায়েলি বিমান বাহিনী। হাসপাতলটির চত্বরে বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিরা আশ্রয় নিয়েছিলেন।

জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা দপ্তর জানিয়েছে, ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর গোলা বর্ষণে ঘরবাড়ি হারিয়ে সীমান্ত পেরিয়ে মিসরে আশ্রয় নেওয়ার জন্য গত তিন দিনে গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ ক্রসিংয়ে জড়ো হয়েছেন ১ লাখেরও বেশি ফিলিস্তিনি।

শুক্রবার ভোরে রাফাহ ক্রসিংয়েও গোলা বর্ষণ করেছে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। বার্তাসংস্থা এএফপির কাছে থাকা টেলিভিশন ফুটেজে রাফাহ ক্রসিং এলাকায় ধোঁয়ার কুন্ডলি ও আগুন দেখা গেছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রাফাহ ক্রসিংয়ে ইসরায়েলি বাহিনীর বোমা হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশই নারী এবং শিশু।