ঢাকা ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪

ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ খুন: ২ গৃহকর্মীর নামে মামলা

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :   ইডেন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যার ঘটনায় রাজধানীর নিউমার্কেট থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় বাসার দুই গৃহকর্মীসহ অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে। আজ সোমবার সকালে মাহফুজা চৌধুরীর স্বামী ইসমত কাদের চৌধুরী এ মামলা করেন। মামলার আসামিরা হল-রূপা ওরফে রেশমা ও স্বপ্না। অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকেও মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান জানান, মাহফুজা চৌধুরীকে বিছানায় মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার মুখে বালিশচাপা ছিল এবং বিছানায় ধস্তাধস্তিরও চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাই ধারণা করা হচ্ছে, ঘুমন্ত অবস্থায় মুখে বালিশচাপা দিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

মাহফুজা চৌধুরী পারভীন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইসমত কাদির গামার স্ত্রী। সুকন্যা টাওয়ারের ওই ডুপ্লেক্স ফ্ল্যাটে তারা স্বামী-স্ত্রী বসবাস করতেন। তাদের বড় ছেলে সেনা কর্মকর্তা ও ছোট ছেলে ব্যাংকার।

প্রসঙ্গত রোববার রাতে ঢাকা কলেজের সামনের বহুতল ভবন ‘সুকন্যা টাওয়ারে’ থেকে মাহফুজা চৌধুরী পারভীনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর তার বাসার দুই গৃহকর্মী পালিয়ে যায়।

তাদের আটকের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপির) রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার।

সোমবার সকালে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, খুনের ঘটনায় আমরা নিহতের দুই গৃহকর্মীকে সন্দেহ করছি। ওই ঘটনার পর বিকাল ৫টার দিকে তারা পালিয়ে যায়।

পলাতক দুই গৃহকর্মীর মধ্যে স্বপ্নার বয়স আনুমানিক ৩৬, রেশমার আনুমানিক ৩০ বছর। স্বপ্নার বাড়ি ফরিদপুরের বোয়ালমারী ও রেশমার কিশোরগঞ্জে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

গ্রাম পুলিশ সদস্যকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা

ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ খুন: ২ গৃহকর্মীর নামে মামলা

আপডেট টাইম : ০৬:২০:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :   ইডেন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যার ঘটনায় রাজধানীর নিউমার্কেট থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় বাসার দুই গৃহকর্মীসহ অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে। আজ সোমবার সকালে মাহফুজা চৌধুরীর স্বামী ইসমত কাদের চৌধুরী এ মামলা করেন। মামলার আসামিরা হল-রূপা ওরফে রেশমা ও স্বপ্না। অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকেও মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান জানান, মাহফুজা চৌধুরীকে বিছানায় মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার মুখে বালিশচাপা ছিল এবং বিছানায় ধস্তাধস্তিরও চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাই ধারণা করা হচ্ছে, ঘুমন্ত অবস্থায় মুখে বালিশচাপা দিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

মাহফুজা চৌধুরী পারভীন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইসমত কাদির গামার স্ত্রী। সুকন্যা টাওয়ারের ওই ডুপ্লেক্স ফ্ল্যাটে তারা স্বামী-স্ত্রী বসবাস করতেন। তাদের বড় ছেলে সেনা কর্মকর্তা ও ছোট ছেলে ব্যাংকার।

প্রসঙ্গত রোববার রাতে ঢাকা কলেজের সামনের বহুতল ভবন ‘সুকন্যা টাওয়ারে’ থেকে মাহফুজা চৌধুরী পারভীনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর তার বাসার দুই গৃহকর্মী পালিয়ে যায়।

তাদের আটকের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপির) রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার।

সোমবার সকালে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, খুনের ঘটনায় আমরা নিহতের দুই গৃহকর্মীকে সন্দেহ করছি। ওই ঘটনার পর বিকাল ৫টার দিকে তারা পালিয়ে যায়।

পলাতক দুই গৃহকর্মীর মধ্যে স্বপ্নার বয়স আনুমানিক ৩৬, রেশমার আনুমানিক ৩০ বছর। স্বপ্নার বাড়ি ফরিদপুরের বোয়ালমারী ও রেশমার কিশোরগঞ্জে।