ঢাকা ১১:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

জাতীয় সংসদের মতো সিটি নির্বাচনও সুষ্ঠু চাই : সিইসি

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতো ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনও নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য উপায়ে করতে রিটার্নিং অফিসার ও এক্সিকিউটিভ অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।

আজ মঙ্গলবার আগারগাঁওস্থ ইটিআই ভবনে ঢাকা উত্তর সিটি মেয়রের শূন্য পদে স্থগিত নির্বাচন, উত্তর ও দক্ষিণ সিটির নবগঠিত ৩৬টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে স্থগিত নির্বাচন এবং উত্তর সিটির ৯ ও ২১ নং সাধরণ ওয়ার্ড কাউন্সিলরের শূন্য পদে নির্বাচন উপলক্ষে রিটার্নিং অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের ব্রিফিং অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, আমরা চাই ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন আপনাদের পরিচালনায় সুষ্ঠু হবে যেমনটি হয়েছে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা পরিশ্রম করেছেন, দক্ষতা দেখিয়েছেন এবং একটি সুষ্ঠু, সুন্দর নির্বাচন জাতির জন্য উপহার দিয়েছেন। এজন্য  আপনাদেরকে এবং আপনাদের মাধ্যমে আপনাদের যত সহকর্মী আছেন তাদের প্রতি অভিনন্দন।

তিনি বলেন, সচিব সাহেবের স্বাক্ষরে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আচরণবিধিমালা আপনাদের কাছে পৌঁছে যাবে। এখানে ৩৩ বিধি রয়েছে তার মধ্যে ৩০টি বিধির উপরে আপনাদের দৃষ্টি দিতে হবে, নজর দিতে হবে। সেই বিধিগুলো বিধিগুলো প্রতিপালন কিভাবে হয়, সেটা যদি দেখতে পারেন তাহলে দায়িত্ব পালন করা অনেক ক্ষেত্রে সম্পন্ন হবে।

সিইসি বলেন, সমস্যা হয় কাউন্সিলরদেরকে নিয়ে। কাউন্সিলররা এতো বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকেন যে আইন কানুন অবনতির ক্ষেত্রে কোনো কোনো জায়গায় তাদের ভূমিকা থাকে।

আমার সহকর্মীরা বলেছেন, আইনানুগ দৃষ্টিভঙ্গি ও বিচারিক মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে। সেটা আপনাদের মধ্যে আছে একথায় আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই। আপনারা যারা এখানে আছে, তারা এদেশের যোগ্য নাগরিক। আপনাদের হাতে কোনো অনিয়ম হবে না এব্যাপারে আমি নিশ্চিত।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহাবুব তালুকদার, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন, নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, আনিসুল হকের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচন হচ্ছে। ওই দিন সিটি করপোরেশনে নতুন যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলোতেও জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে প্রথম ভোটগ্রহণ হবে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

জাতীয় সংসদের মতো সিটি নির্বাচনও সুষ্ঠু চাই : সিইসি

আপডেট টাইম : ০৮:০২:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতো ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনও নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য উপায়ে করতে রিটার্নিং অফিসার ও এক্সিকিউটিভ অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।

আজ মঙ্গলবার আগারগাঁওস্থ ইটিআই ভবনে ঢাকা উত্তর সিটি মেয়রের শূন্য পদে স্থগিত নির্বাচন, উত্তর ও দক্ষিণ সিটির নবগঠিত ৩৬টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে স্থগিত নির্বাচন এবং উত্তর সিটির ৯ ও ২১ নং সাধরণ ওয়ার্ড কাউন্সিলরের শূন্য পদে নির্বাচন উপলক্ষে রিটার্নিং অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের ব্রিফিং অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, আমরা চাই ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন আপনাদের পরিচালনায় সুষ্ঠু হবে যেমনটি হয়েছে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা পরিশ্রম করেছেন, দক্ষতা দেখিয়েছেন এবং একটি সুষ্ঠু, সুন্দর নির্বাচন জাতির জন্য উপহার দিয়েছেন। এজন্য  আপনাদেরকে এবং আপনাদের মাধ্যমে আপনাদের যত সহকর্মী আছেন তাদের প্রতি অভিনন্দন।

তিনি বলেন, সচিব সাহেবের স্বাক্ষরে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আচরণবিধিমালা আপনাদের কাছে পৌঁছে যাবে। এখানে ৩৩ বিধি রয়েছে তার মধ্যে ৩০টি বিধির উপরে আপনাদের দৃষ্টি দিতে হবে, নজর দিতে হবে। সেই বিধিগুলো বিধিগুলো প্রতিপালন কিভাবে হয়, সেটা যদি দেখতে পারেন তাহলে দায়িত্ব পালন করা অনেক ক্ষেত্রে সম্পন্ন হবে।

সিইসি বলেন, সমস্যা হয় কাউন্সিলরদেরকে নিয়ে। কাউন্সিলররা এতো বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকেন যে আইন কানুন অবনতির ক্ষেত্রে কোনো কোনো জায়গায় তাদের ভূমিকা থাকে।

আমার সহকর্মীরা বলেছেন, আইনানুগ দৃষ্টিভঙ্গি ও বিচারিক মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে। সেটা আপনাদের মধ্যে আছে একথায় আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই। আপনারা যারা এখানে আছে, তারা এদেশের যোগ্য নাগরিক। আপনাদের হাতে কোনো অনিয়ম হবে না এব্যাপারে আমি নিশ্চিত।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহাবুব তালুকদার, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন, নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, আনিসুল হকের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচন হচ্ছে। ওই দিন সিটি করপোরেশনে নতুন যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলোতেও জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে প্রথম ভোটগ্রহণ হবে।