ঢাকা ০৪:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

‘শামিকে মিস করছে ভারত’

সেঞ্চুরিয়ানে দুই দলের পেসাররাই বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন। বাড়তি বাউন্সের সঙ্গে সুইং সবমিলিয়ে পেসারদের স্বর্গ হয়ে ওঠেছে সেঞ্চুরিয়ান। এমন উইকেটে ভারতের একাদশে আছে তিন বিশেষজ্ঞ পেসার। কিন্তু প্রসিধ কৃষ্ণা খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। যে কারণে ম্যাচে বেশ ভুগতে হচ্ছে ভারতকে।

এই টেস্টে ভারত সবচেয়ে বেশি মিস করছে মোহাম্মদ শামিকে, এমনটাই ধারণা দীনেশ কার্তিকের। তার মতে, সেঞ্চুরিয়নের এই উইকেটে বেশ কার্যকর হতেন শামির মতো পেসার। তাছাড়া সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপেও তিনি দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন। তবে চোটের কারণে তাকে পাওয়া যায়নি এই টেস্ট সিরিজে।

কার্তিক বলেন, ‘এই মানুষটা (শামি) বোলার হিসেবে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। সে বোলারদের নেতাও বটে জসপ্রীত বুমরাহর পাশে সে একজন লেফটেন্যান্টের মতোই। এই ধরনের উইকেটে আপনি তার আপরাইট সিম অনুমান করতে পারেন। আমি প্রতিজ্ঞা করেই বলতে পারি, সে এখানে কয়েকটি উইকেট অবশ্যই নিত। ভারতীয় দল তাকে অনুভব করছে।’

প্রথম ইনিংসে ২৪৫ রান করেছিল ভারত। যেখানে দাপট ছিল প্রোটিয়া পেসারদের। লোকেশ রাহুল ছাড়া আর কেউই স্বাগতিক পেসারদের সামনে সাবলীল ছিলেন না। অথচ ভারত যখন বোলিংয়ে নামে তখন যেন বদলে যায় উইকেট। প্রোটিয়ারা প্রথম ইনিংসে করেছে ৪০৮ রান।

কার্তিক বলেন, ‘শার্দুল ঠাকুর আর প্রসিধ কৃষ্ণা ২৭ ওভারে ১১৮ রানের বেশি দিয়েছে। আরেকদিকে জসপ্রীত বুমরাহ এবং মোহাম্মদ সিরাজ ৩১ ওভারে ১১১ রান দিয়েছে। সিরাজ বেশ খরুচে ছিল। বিশেষ করে শেষ দিকের ওভারগুলোতে। আবার ভালো বলও তারা করেছে। আপনি তাদের (সিরাজ-বুমরাহ) যতবারই দেখেছেন আপনার মনে হয়েছে তারা ১-২টি উইকেট নিতে পারে। এদিকে শার্দুল বা প্রসিধ- এদের ক্ষেত্রে ব্যাটারদের ভুল করার অপেক্ষায় থাকতে হয়।’

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

‘শামিকে মিস করছে ভারত’

আপডেট টাইম : ০৯:১৮:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩

সেঞ্চুরিয়ানে দুই দলের পেসাররাই বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন। বাড়তি বাউন্সের সঙ্গে সুইং সবমিলিয়ে পেসারদের স্বর্গ হয়ে ওঠেছে সেঞ্চুরিয়ান। এমন উইকেটে ভারতের একাদশে আছে তিন বিশেষজ্ঞ পেসার। কিন্তু প্রসিধ কৃষ্ণা খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। যে কারণে ম্যাচে বেশ ভুগতে হচ্ছে ভারতকে।

এই টেস্টে ভারত সবচেয়ে বেশি মিস করছে মোহাম্মদ শামিকে, এমনটাই ধারণা দীনেশ কার্তিকের। তার মতে, সেঞ্চুরিয়নের এই উইকেটে বেশ কার্যকর হতেন শামির মতো পেসার। তাছাড়া সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপেও তিনি দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন। তবে চোটের কারণে তাকে পাওয়া যায়নি এই টেস্ট সিরিজে।

কার্তিক বলেন, ‘এই মানুষটা (শামি) বোলার হিসেবে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। সে বোলারদের নেতাও বটে জসপ্রীত বুমরাহর পাশে সে একজন লেফটেন্যান্টের মতোই। এই ধরনের উইকেটে আপনি তার আপরাইট সিম অনুমান করতে পারেন। আমি প্রতিজ্ঞা করেই বলতে পারি, সে এখানে কয়েকটি উইকেট অবশ্যই নিত। ভারতীয় দল তাকে অনুভব করছে।’

প্রথম ইনিংসে ২৪৫ রান করেছিল ভারত। যেখানে দাপট ছিল প্রোটিয়া পেসারদের। লোকেশ রাহুল ছাড়া আর কেউই স্বাগতিক পেসারদের সামনে সাবলীল ছিলেন না। অথচ ভারত যখন বোলিংয়ে নামে তখন যেন বদলে যায় উইকেট। প্রোটিয়ারা প্রথম ইনিংসে করেছে ৪০৮ রান।

কার্তিক বলেন, ‘শার্দুল ঠাকুর আর প্রসিধ কৃষ্ণা ২৭ ওভারে ১১৮ রানের বেশি দিয়েছে। আরেকদিকে জসপ্রীত বুমরাহ এবং মোহাম্মদ সিরাজ ৩১ ওভারে ১১১ রান দিয়েছে। সিরাজ বেশ খরুচে ছিল। বিশেষ করে শেষ দিকের ওভারগুলোতে। আবার ভালো বলও তারা করেছে। আপনি তাদের (সিরাজ-বুমরাহ) যতবারই দেখেছেন আপনার মনে হয়েছে তারা ১-২টি উইকেট নিতে পারে। এদিকে শার্দুল বা প্রসিধ- এদের ক্ষেত্রে ব্যাটারদের ভুল করার অপেক্ষায় থাকতে হয়।’