ঢাকা ০৮:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

এবার ইসরায়েলের হামলায় লেবাননের সৈন্য নিহত

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে ইসরায়েলি আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ইসরায়েল-লেবানন সীমান্তেও উত্তেজনা বিরাজ করেছে। গাজায় সংঘাত শুরুর পর লেবাননের ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ উত্তর ইসরায়েলের বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়ে আসছে।

পাল্টা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলও। আর এর মধ্যেই এবার ইসরায়েলের হামলায় নিহত হয়েছেন লেবাননের এক সেনাসদস্য। গত অক্টোবরে আন্তঃসীমান্ত সংঘাত শুরুর পর এই প্রথম লেবাননের কোনও সৈন্য নিহতের ঘটনা ঘটল।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের দক্ষিণ সীমান্তের কাছে একটি সামরিক পোস্টে ইসরায়েলি হামলায় একজন লেবানিজ সৈন্য নিহত হয়েছেন বলে লেবাননের সেনাবাহিনী জানিয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওয়েইদা পাহাড়ে অবস্থিত ওই সীমান্ত চৌকিতে হামলার ঘটনায় আরও তিনজন সেনাসদস্য আহত হয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আদায়েসেহ এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি চৌকিতে ইসরায়েলি শত্রুরা বোমাবর্ষণ করেছে এবং এতে একজন সৈন্য শহীদ ও আরও তিনজন আহত হয়েছেন।’

গাজায় হামাসের সাথে গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলি বাহিনীর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলে হামলা চালিয়ে আসছে হিজবুল্লাহ। এই হামলার জবাবে লেবাননে ড্রোন ও বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গাজায় প্রায় দুই মাস আগে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ইসরায়েল-লেবাননের সীমান্তে সংঘর্ষে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। ইসরায়েলের সাথে সংঘাতে এখন পর্যন্ত হিজবুল্লাহর ৮৫ জনের বেশি যোদ্ধা নিহত হয়েছেন।

একই সময়ে লেবাননের কয়েকজন বেসামরিক নাগরিকও ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন। আর ইসরায়েল-লেবানন সীমান্ত সংঘাতে এখন পর্যন্ত সবমিলিয়ে নিহত হয়েছেন ১০০ জনেরও বেশি মানুষ।

মঙ্গলবার হিজবুল্লাহ বলেছে, তাদের যোদ্ধারা সীমান্তে চারটি ইসরায়েলি অবস্থানে আক্রমণ করেছে। তবে ইসরায়েল বলেছে, দক্ষিণ লেবানন থেকে নিক্ষেপ করা বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র খালি এলাকায় পড়েছে।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) জানায়, হামলার জবাবে ইসরায়েলি সৈন্যরা লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলীয় কয়েকটি এলাকায় গোলাবারুদ নিক্ষেপ করেছে। এছাড়া রকেট নিক্ষেপের উৎস লক্ষ্য করে লেবাননের দক্ষিণের একাধিক এলাকায় কামানের গোলা নিক্ষেপ করা হয়েছে।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

এবার ইসরায়েলের হামলায় লেবাননের সৈন্য নিহত

আপডেট টাইম : ১২:৫১:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে ইসরায়েলি আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ইসরায়েল-লেবানন সীমান্তেও উত্তেজনা বিরাজ করেছে। গাজায় সংঘাত শুরুর পর লেবাননের ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ উত্তর ইসরায়েলের বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়ে আসছে।

পাল্টা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলও। আর এর মধ্যেই এবার ইসরায়েলের হামলায় নিহত হয়েছেন লেবাননের এক সেনাসদস্য। গত অক্টোবরে আন্তঃসীমান্ত সংঘাত শুরুর পর এই প্রথম লেবাননের কোনও সৈন্য নিহতের ঘটনা ঘটল।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের দক্ষিণ সীমান্তের কাছে একটি সামরিক পোস্টে ইসরায়েলি হামলায় একজন লেবানিজ সৈন্য নিহত হয়েছেন বলে লেবাননের সেনাবাহিনী জানিয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওয়েইদা পাহাড়ে অবস্থিত ওই সীমান্ত চৌকিতে হামলার ঘটনায় আরও তিনজন সেনাসদস্য আহত হয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আদায়েসেহ এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি চৌকিতে ইসরায়েলি শত্রুরা বোমাবর্ষণ করেছে এবং এতে একজন সৈন্য শহীদ ও আরও তিনজন আহত হয়েছেন।’

গাজায় হামাসের সাথে গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলি বাহিনীর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলে হামলা চালিয়ে আসছে হিজবুল্লাহ। এই হামলার জবাবে লেবাননে ড্রোন ও বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গাজায় প্রায় দুই মাস আগে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ইসরায়েল-লেবাননের সীমান্তে সংঘর্ষে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। ইসরায়েলের সাথে সংঘাতে এখন পর্যন্ত হিজবুল্লাহর ৮৫ জনের বেশি যোদ্ধা নিহত হয়েছেন।

একই সময়ে লেবাননের কয়েকজন বেসামরিক নাগরিকও ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন। আর ইসরায়েল-লেবানন সীমান্ত সংঘাতে এখন পর্যন্ত সবমিলিয়ে নিহত হয়েছেন ১০০ জনেরও বেশি মানুষ।

মঙ্গলবার হিজবুল্লাহ বলেছে, তাদের যোদ্ধারা সীমান্তে চারটি ইসরায়েলি অবস্থানে আক্রমণ করেছে। তবে ইসরায়েল বলেছে, দক্ষিণ লেবানন থেকে নিক্ষেপ করা বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র খালি এলাকায় পড়েছে।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) জানায়, হামলার জবাবে ইসরায়েলি সৈন্যরা লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলীয় কয়েকটি এলাকায় গোলাবারুদ নিক্ষেপ করেছে। এছাড়া রকেট নিক্ষেপের উৎস লক্ষ্য করে লেবাননের দক্ষিণের একাধিক এলাকায় কামানের গোলা নিক্ষেপ করা হয়েছে।