ঢাকা ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

রোহিঙ্গাদের দেখতে বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :  কক্সবাজার জেলার রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও ভাসানচর পরিদর্শন করতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াংহি লি। তিনি কক্সবাজারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখবেন এবং ভাসানচরে সম্ভাব্য রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি বিষয়ক বিশেষ দূত থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে ১১ দিনের সফর করছেন। আজ তিনি থাইল্যান্ড থেকে সরাসরি ঢাকা আসবেন। তবে মিয়ানমারে যাওয়ার অনুমতি পাননি তিনি।

ইয়াংহি লি মিয়ানমারের মানবাধিকার বিষয়ক দূত হলেও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ তাকে দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি। একইসঙ্গে সহযোগিতা দিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছে। দেশটির দাবি, স্থানীয় বাসিন্দা ও এনজিওগুলো অভিযোগ করেছে যে, মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তার পর্যালোচনা পক্ষপাতমূলক। এ জন্য মিয়ানমারে তার প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে তার বদলে অন্য কাউকে নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশটি।

ইয়াংহি লি আগামী মার্চে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪০তম সেশনে রোহিঙ্গা নির্যাতনসহ মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তার প্রতিবেদন সুপারিশসহ জমা দেবেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

রোহিঙ্গাদের দেখতে বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত

আপডেট টাইম : ০৯:১৬:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :  কক্সবাজার জেলার রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও ভাসানচর পরিদর্শন করতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াংহি লি। তিনি কক্সবাজারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখবেন এবং ভাসানচরে সম্ভাব্য রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি বিষয়ক বিশেষ দূত থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে ১১ দিনের সফর করছেন। আজ তিনি থাইল্যান্ড থেকে সরাসরি ঢাকা আসবেন। তবে মিয়ানমারে যাওয়ার অনুমতি পাননি তিনি।

ইয়াংহি লি মিয়ানমারের মানবাধিকার বিষয়ক দূত হলেও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ তাকে দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি। একইসঙ্গে সহযোগিতা দিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছে। দেশটির দাবি, স্থানীয় বাসিন্দা ও এনজিওগুলো অভিযোগ করেছে যে, মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তার পর্যালোচনা পক্ষপাতমূলক। এ জন্য মিয়ানমারে তার প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে তার বদলে অন্য কাউকে নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশটি।

ইয়াংহি লি আগামী মার্চে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪০তম সেশনে রোহিঙ্গা নির্যাতনসহ মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তার প্রতিবেদন সুপারিশসহ জমা দেবেন।