ঢাকা ১০:০১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :
Logo অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করাকালে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা হতে ০৪ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। Logo ফরিদপুর জেলার মধুখালিতে “শ্যালিকার সঙ্গে পরকীয়ার জেরে দুলাভাইকে হত্যা” শীর্ষক চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার পলাতক আসামি শরিফুল শেখ ও তথি বেগম’কে ফরিদপুরের কোতোয়ালি এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। Logo মুন্সীগঞ্জ জেলার টংগীবাড়ী এলাকা হতে ২৩.৫ কেজি গাঁজাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ Logo গ্রাম পুলিশ সদস্যকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা Logo আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

নারায়ণগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :    নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি ফ্ল্যাটে আগুন লেগে একই পরিবারের নয়জন দগ্ধ হয়েছেন। আজ বুধবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ফতুল্লার হক বাজার এলাকায় জাকির মিয়ার তিন তলার ওই ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধরা হলেন- শ্রীনাথ চন্দ্র বর্মণ (৩৫), তার স্ত্রী মতি অর্চনা (৩২)  ও তাদের সন্তান অনামিকা, ছেলে অর্পিত। এছাড়া দগ্ধ বর্মণের মা ছায়া রানী (৬০) তার মেয়ে সুমিত্রা, ছেলে প্রমিত (১৪), তার ছোট ভাই শাওন (১০), বোন জামাই নারায়ণ চন্দ্র।
প্রতিবেশীরা জানান, রাতে ঘুমানোর সময় পরিবারটি মশার কয়েল জ্বালিয়ে রেখেছিল। আর কয়েলের আগুন তাদের কাপড়ে ও আসবাবপত্রে লেগে পুরো ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। পরে তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন গিয়ে দগ্ধদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢামেক পুলিশ বক্সের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, দগ্ধরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করাকালে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা হতে ০৪ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০।

নারায়ণগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ

আপডেট টাইম : ০৯:২৭:৩২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮
আলোর জগত ডেস্ক :    নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি ফ্ল্যাটে আগুন লেগে একই পরিবারের নয়জন দগ্ধ হয়েছেন। আজ বুধবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ফতুল্লার হক বাজার এলাকায় জাকির মিয়ার তিন তলার ওই ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধরা হলেন- শ্রীনাথ চন্দ্র বর্মণ (৩৫), তার স্ত্রী মতি অর্চনা (৩২)  ও তাদের সন্তান অনামিকা, ছেলে অর্পিত। এছাড়া দগ্ধ বর্মণের মা ছায়া রানী (৬০) তার মেয়ে সুমিত্রা, ছেলে প্রমিত (১৪), তার ছোট ভাই শাওন (১০), বোন জামাই নারায়ণ চন্দ্র।
প্রতিবেশীরা জানান, রাতে ঘুমানোর সময় পরিবারটি মশার কয়েল জ্বালিয়ে রেখেছিল। আর কয়েলের আগুন তাদের কাপড়ে ও আসবাবপত্রে লেগে পুরো ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। পরে তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন গিয়ে দগ্ধদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢামেক পুলিশ বক্সের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, দগ্ধরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।