ঢাকা ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার ১৭ ডিসেম্বর, জনসভা স্থগিত

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :  রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সকালে ঘোষণা করা আগামী ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ কর্মসূচি রাতে স্থগিত করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একইসঙ্গে আগামী ১৭ নভেম্বর আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে ইশতেহার দেয়ার কথা বলা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জোটের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পর ফখরুল এ তথ্য জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণহারে মনোনয়নপত্র বাতিলের পর যে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে, এ বিষয়ে বৈঠকে পর্যালোচনা করা হয়েছে। প্রতীক বরাদ্দের বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। একইসঙ্গে প্রতীক বরাদ্দের পরেই নিজ নিজ এলাকায়, নিজ নিজ প্রতীক নিয়ে জনগণের সামনে মিছিল করা নিয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নির্বাচনি ইশতেহার সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, আগামী ১৭ ডিসেম্বর ঐক্যফ্রন্টের যে ইশতেহার ঘোষণা করা হবে, তা প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে জানানো হবে। আসন বণ্টন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়েছে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘প্রতীক বরাদ্দ ও আসন বিন্যাস নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আপনারা দুই-একদিনের মধ্যেই জানতে পারবেন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ড. কামাল হোসেন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার ১৭ ডিসেম্বর, জনসভা স্থগিত

আপডেট টাইম : ০৫:৫৩:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৮

আলোর জগত ডেস্ক :  রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সকালে ঘোষণা করা আগামী ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ কর্মসূচি রাতে স্থগিত করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একইসঙ্গে আগামী ১৭ নভেম্বর আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে ইশতেহার দেয়ার কথা বলা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জোটের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পর ফখরুল এ তথ্য জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণহারে মনোনয়নপত্র বাতিলের পর যে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে, এ বিষয়ে বৈঠকে পর্যালোচনা করা হয়েছে। প্রতীক বরাদ্দের বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। একইসঙ্গে প্রতীক বরাদ্দের পরেই নিজ নিজ এলাকায়, নিজ নিজ প্রতীক নিয়ে জনগণের সামনে মিছিল করা নিয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নির্বাচনি ইশতেহার সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, আগামী ১৭ ডিসেম্বর ঐক্যফ্রন্টের যে ইশতেহার ঘোষণা করা হবে, তা প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে জানানো হবে। আসন বণ্টন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়েছে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘প্রতীক বরাদ্দ ও আসন বিন্যাস নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আপনারা দুই-একদিনের মধ্যেই জানতে পারবেন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ড. কামাল হোসেন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।