ঢাকা ০৩:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

আপিলে ১০০ জনের মধ্যে ৫৬ জনের মনোনয়ন বৈধ

আলোর জগত ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলে দুপুর পৌনে দু্ইটা পর্যন্ত ১০০ জনের আপিল নিষ্পত্তি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এর মধ্যে ৫৬ জনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি ৪৪ জনের মধ্যে ৪০ জনের আপিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করায় তাদের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে চার নির্বাচন কমিশনার আপিল শুনানি নিচ্ছেন। সকাল ১০টায় শুরু হয় প্রথম দিনের এই আপিল শুনানি।

আপিলে যারা প্রার্থিতা ফিরে পেলেন: 

১. বগুড়া-৭: মোরশেদ মিল্টন (বিএনপি)

২. কিশোরগঞ্জ-২: আখতারুজ্জামান

৩. পটুয়াখালী-৩: গোলাম মাওলা রনি, মো. শাহজাহান

৪. ঢাকা-২০: তমিজউদ্দিন

৫. ঢাকা- ১: আবু আশফাক

৬. জামালপুর-৪: ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম

৭. পটুয়াখালী-১: সুমন সন্যামাত

৮. মাদারীপুর-১: জহিরুল ইসলাম মিন্টু

৯. ঝিনাইদহ-২: আবদুল মজিদ

১০. সিলেট-৩: আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী

১১. জয়পুরহাট-১: বজলুর রহমান

১২.পাবনা-৩: হাসাদুল ইসলাম

১৩. সাতক্ষীরা-২: মো. আফসার আলী

১৪. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬: জেসমিন নূর বেবী

১৫. গাজীপুর-২. মো. জয়নাল আবেদীন, মো. মাহবুব আলম

১৬. খুলনা-৬: এস এম শফিকুল আলম মনা

১৭. সিরাজগঞ্জ ৩: মো. আয়নাল হক

১৮. রংপুর ৪: মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল

১৯. মানিকগঞ্জ ২: আবিদুর রহমান রোমান

২০. হবিগঞ্জ ১: জুবায়ের আহমেদ

২১. ব্রাহ্মণবাড়িয়া৩: আবদুল্লাহ আল হেলাল

২২. নেত্রকোনা-১: নজরুল ইসলাম

২৩. কুড়িগ্রাম-৪: ইউনুস আলী

২৫. বরিশাল-২: আনিসুজ্জামান

২৬. ঢাকা-৫: সেলিম ভূঁইয়া

২৭. ঝিনাইদহ-৩: কামরুজ্জামান স্বাধীন

২৮. কুমিল্লা-৩: কে এম মুজিবুল হক

২৯. মানিকগঞ্জ-১: তোজাম্মেল হক

৩০. সিলেট-৫: ফয়জুল মুনীর চৌধুরী

৩১. ময়মনসিংহ-৩: আহাম্মদ তায়েবুর রহমান

৩২. ঝিনাইদহ-৪: আব্দুল মান্নান

৩৩. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩: সৈয়দ আনোয়ার আহম্মদ লিটন

৩৪. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫: মামুনুর রশিদ

৩৫. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২: প্রার্থী আবু আসিফ

৩৬. ঢাকা-১৪: জাকির হোসেন

 

আপিলে যারা প্রার্থিতা ফিরে পেলেন না: 

১. দিনাজপুর-১: মোহাম্মদ পারভেজ হোসেন

২. চাপাইনববাগঞ্জ-২: মোহাম্মদ তৈয়ব আলী

৩. মাদারীপুর-১: জাহিরুল ইসলাম মিন্টু

৪. ফেনী-১: মিজানুর রহমান

৫. কিশোরগঞ্জ-৩: ডা. মিজানুল হক

৬. দিনাজপুর-১: পারভেজ হোসেন

৭. ময়মনসিংহ-৪: আবু সাইদ মহিউদ্দিন

৮. বগুড়া-৬: আশরাফুল ইসলাম ওরফে হিরো আলম

৯. রাঙামাটি: অমর কুমার দে

১০. রংপুর-৫: গোলাম রব্বানী

১১. মাদারীপুর-১: আব্দুল খালেক

১২. দিনাজপুর-৩: মোকাররম হোসেন

১৩. ঠাকুরগাঁও-৩: এস এম খলিলুর রহমান

১৪. চাপাইনববাগঞ্জ-১: মো. শামসুল হুদা

১৫. ময়মনসিংহ-২: মো. এমদাদুল হক

১৬. খুলনা-২: এস. এম. এরশাদুজ্জামান

১৭. নাটোর ১: শ্রী বীরেন্দ্রনাথ সাহা

১৮. ঢাকা-১: মো. আইয়ুব খান

১৯. বগুড়া-৩: মো. আব্দুল মুহিত

২০. হবিগঞ্জ-২: মো. জাকির হোসেন

২১. ঢাকা-১৪: সাইফুদ্দিন আহমেদ

২২. সাতক্ষীরা-১: এস এম মুজিবর রহমান

এখনো মনোনয়নপত্র বাতিলের আপিল শুনানি চলছে।

গত সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত আপিল গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। তিন দিনে ৫৪৩ জন আপিল করেছেন। প্রথম দিনে ৮৪, দ্বিতীয় দিনে ২৩৭ ও তৃতীয় দিনে ২২২টি আবেদন নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা পড়ে।

আজ ১ থেকে ১৬০ পর্যন্ত ক্রমিক নম্বরের আবেদন শুনানি হবে। শুক্রবার ১৬১ থেকে ৩১০ পর্যন্ত এবং শনিবার ৩১১ ক্রমিক নম্বর থেকে ৫৪৩ পর্যন্ত আবেদনের আপিল শুনানি গ্রহণ করবে কমিশন।

যারা আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেতে ব্যর্থ হয়েছেন তারা উচ্চ আদালতে আবেদন করতে পারবেন। সেখানকার শুনানি শেষেই তার চূড়ান্ত প্রার্থিতা নির্ধারিত হবে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

আপিলে ১০০ জনের মধ্যে ৫৬ জনের মনোনয়ন বৈধ

আপডেট টাইম : ১০:৪৫:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮

আলোর জগত ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলে দুপুর পৌনে দু্ইটা পর্যন্ত ১০০ জনের আপিল নিষ্পত্তি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এর মধ্যে ৫৬ জনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি ৪৪ জনের মধ্যে ৪০ জনের আপিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করায় তাদের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে চার নির্বাচন কমিশনার আপিল শুনানি নিচ্ছেন। সকাল ১০টায় শুরু হয় প্রথম দিনের এই আপিল শুনানি।

আপিলে যারা প্রার্থিতা ফিরে পেলেন: 

১. বগুড়া-৭: মোরশেদ মিল্টন (বিএনপি)

২. কিশোরগঞ্জ-২: আখতারুজ্জামান

৩. পটুয়াখালী-৩: গোলাম মাওলা রনি, মো. শাহজাহান

৪. ঢাকা-২০: তমিজউদ্দিন

৫. ঢাকা- ১: আবু আশফাক

৬. জামালপুর-৪: ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম

৭. পটুয়াখালী-১: সুমন সন্যামাত

৮. মাদারীপুর-১: জহিরুল ইসলাম মিন্টু

৯. ঝিনাইদহ-২: আবদুল মজিদ

১০. সিলেট-৩: আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী

১১. জয়পুরহাট-১: বজলুর রহমান

১২.পাবনা-৩: হাসাদুল ইসলাম

১৩. সাতক্ষীরা-২: মো. আফসার আলী

১৪. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬: জেসমিন নূর বেবী

১৫. গাজীপুর-২. মো. জয়নাল আবেদীন, মো. মাহবুব আলম

১৬. খুলনা-৬: এস এম শফিকুল আলম মনা

১৭. সিরাজগঞ্জ ৩: মো. আয়নাল হক

১৮. রংপুর ৪: মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল

১৯. মানিকগঞ্জ ২: আবিদুর রহমান রোমান

২০. হবিগঞ্জ ১: জুবায়ের আহমেদ

২১. ব্রাহ্মণবাড়িয়া৩: আবদুল্লাহ আল হেলাল

২২. নেত্রকোনা-১: নজরুল ইসলাম

২৩. কুড়িগ্রাম-৪: ইউনুস আলী

২৫. বরিশাল-২: আনিসুজ্জামান

২৬. ঢাকা-৫: সেলিম ভূঁইয়া

২৭. ঝিনাইদহ-৩: কামরুজ্জামান স্বাধীন

২৮. কুমিল্লা-৩: কে এম মুজিবুল হক

২৯. মানিকগঞ্জ-১: তোজাম্মেল হক

৩০. সিলেট-৫: ফয়জুল মুনীর চৌধুরী

৩১. ময়মনসিংহ-৩: আহাম্মদ তায়েবুর রহমান

৩২. ঝিনাইদহ-৪: আব্দুল মান্নান

৩৩. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩: সৈয়দ আনোয়ার আহম্মদ লিটন

৩৪. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫: মামুনুর রশিদ

৩৫. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২: প্রার্থী আবু আসিফ

৩৬. ঢাকা-১৪: জাকির হোসেন

 

আপিলে যারা প্রার্থিতা ফিরে পেলেন না: 

১. দিনাজপুর-১: মোহাম্মদ পারভেজ হোসেন

২. চাপাইনববাগঞ্জ-২: মোহাম্মদ তৈয়ব আলী

৩. মাদারীপুর-১: জাহিরুল ইসলাম মিন্টু

৪. ফেনী-১: মিজানুর রহমান

৫. কিশোরগঞ্জ-৩: ডা. মিজানুল হক

৬. দিনাজপুর-১: পারভেজ হোসেন

৭. ময়মনসিংহ-৪: আবু সাইদ মহিউদ্দিন

৮. বগুড়া-৬: আশরাফুল ইসলাম ওরফে হিরো আলম

৯. রাঙামাটি: অমর কুমার দে

১০. রংপুর-৫: গোলাম রব্বানী

১১. মাদারীপুর-১: আব্দুল খালেক

১২. দিনাজপুর-৩: মোকাররম হোসেন

১৩. ঠাকুরগাঁও-৩: এস এম খলিলুর রহমান

১৪. চাপাইনববাগঞ্জ-১: মো. শামসুল হুদা

১৫. ময়মনসিংহ-২: মো. এমদাদুল হক

১৬. খুলনা-২: এস. এম. এরশাদুজ্জামান

১৭. নাটোর ১: শ্রী বীরেন্দ্রনাথ সাহা

১৮. ঢাকা-১: মো. আইয়ুব খান

১৯. বগুড়া-৩: মো. আব্দুল মুহিত

২০. হবিগঞ্জ-২: মো. জাকির হোসেন

২১. ঢাকা-১৪: সাইফুদ্দিন আহমেদ

২২. সাতক্ষীরা-১: এস এম মুজিবর রহমান

এখনো মনোনয়নপত্র বাতিলের আপিল শুনানি চলছে।

গত সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত আপিল গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। তিন দিনে ৫৪৩ জন আপিল করেছেন। প্রথম দিনে ৮৪, দ্বিতীয় দিনে ২৩৭ ও তৃতীয় দিনে ২২২টি আবেদন নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা পড়ে।

আজ ১ থেকে ১৬০ পর্যন্ত ক্রমিক নম্বরের আবেদন শুনানি হবে। শুক্রবার ১৬১ থেকে ৩১০ পর্যন্ত এবং শনিবার ৩১১ ক্রমিক নম্বর থেকে ৫৪৩ পর্যন্ত আবেদনের আপিল শুনানি গ্রহণ করবে কমিশন।

যারা আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেতে ব্যর্থ হয়েছেন তারা উচ্চ আদালতে আবেদন করতে পারবেন। সেখানকার শুনানি শেষেই তার চূড়ান্ত প্রার্থিতা নির্ধারিত হবে।