>

শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তির অভিযোগে বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা

প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তির অভিযোগে বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা

জাকির সিকদার, রাজাপুর,ঝালকাঠি
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটুক্তি করে পোষ্ট দেয়ার অভিযোগে ঝালকাঠির রাজাপুর থানায় জেলা বিএনপির অন্যতম নেতা মো. রফিকুল ইসলাম জামালের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
     মামলায় অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম জামাল ২০০৮ সালে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা সাবেক এমপি অব. মেজর ব্যা. শাহজাহান ওমর দূর্নীতির দায়ে নির্বাচেনর অযোগ্য বিবেচিত হওয়ার পর ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের বিএনপি মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে ছিলেন।
    গত বুধবার দিবাগত রাতে আওযামীলীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির নেতা মনিরুজ্জামান মনিরের ভাগ্নে ও শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি পরিচয়দাতা মোঃ সাব্বির খান বাদি হয়ে মামলাটি (নং-৩) দায়ের করেন। তবে অতি গোপনে দায়েরকৃত মামলাটি সম্পর্কে বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) অনিমেষ মন্ডল নিশ্চিত করেন।
     মামলা সূত্রে জানা গেছে, এই বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম জামাল তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে গত ৪ জুলাই রাত ১০ টা ৩১ মিনিটে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বাংলাদেশের বিশিষ্ট রাজনীতিবিধদের জড়িয়ে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ও সম্মান ক্ষুন্ন করার লক্ষে বিভান্তি ও অস্থিতিশীলতা ছড়াইয়ার উদ্দেশ্যে মিথ্যা ও মানহানিকর তথ্য প্রচার করে। এসব তথ্য ব্যাপক ভাবে প্রচারীত হলে দেশের অভ্যন্তরে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির ব্যাপক অবনতির সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।
    এ বিষয়ে মামলার বাদী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোঃ সাব্বির খান জানান, অভিযুক্ত বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম জামাল প্রায়শই সরকার ও প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে অপত্তিকর মন্তব্য লিখে আসছেন। রাজাপুরের স্থানীয় বিএনপির অনেক নেতাদের কাছে বিষয়টি জানিয়ে অপপ্রচার থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ করলেও তিনি প্রপাগন্ডা অব্যহত রাখায় দলীয় একজন কর্মী হিসাবে আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি।
     এ ব্যাপারে মামলার শিকার ঝালকাঠি জেলা বিএনপির নেতা মোঃ রফিকুল ইসলাম জামালের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে (০১৭১১৫৪৭৪৪৪ নাম্বারে) একাধিকবার ফোন করলেও তার নাম্বারটি বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
     রাজাপুর থানার ওসি তদন্ত অনিমেষ মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৫(২) ২৯(১)/৩১(২) ধারায় এ মামলা রেকর্ড করা হয়েছে এবং আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
    এ ব্যাপারে জেলা বিএনপির সদস্য সচিব এড. শাহাদাত হোসেনের সাথে জানান, তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সাংবাদিকের কাছে বিষয়টি শুনলেও এখোন পর্যন্ত বিস্তারিত কিছুই জানতে পারেনি। বিষয়টি খোজখবর নিয়ে জানার পর পরবর্তী প্রতিক্রিয়া জানাবেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Dainikalorjagat.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com