ঢাকা ১০:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

নয়াপল্টনে পুলিশ পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে : রিজভী

ফাইল ছবি

অালোর জগত ডেস্ক :   বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, মনোনয়ন ফরম নিতে আসা নেতা-কর্মীদের ওপর বিনা উসকানিতে পরিকল্পিত হামলা করেছে পুলিশ। আজ বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, গত তিন ধরে নেতা-কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে আসে। পল্টনে স্বাভাবিক পরিবেশ বিরাজ করছিল। নির্বাচন কমিশন পুলিশ দিয়ে এ হামলা চালাচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

এর আগে, দুপুর ১টায় ১টার দিকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় উপস্থিত নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাক্কা ধাক্কি হলে হেলমেট কেড়ে নেয় নেতাকর্মীরা। পুলিশ রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ও কাঁদুনে গ্যাস নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। উপস্থিত নেতাকর্মীরা আশেপাশের মার্কেট, হোটেল, শপিং মল ও গলিতে অবস্থান নেয়।

উল্লেখ্য, তৃতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলছিল। এ উপলক্ষে গত দুই দিনের মত আজও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। সকাল থেকেই মিছিল নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসতে থাকেন। রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন হাতে স্লোগান দিয়ে, ব্যান্ড বাজিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও এর আশপাশের সড়কে মিছিল করেছেন।

নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে সাত দফা এক দাবি, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, তারেক রহমানের মুক্তি চাই, রাজপথ ছাড়ব না ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছিলেন। অনেকে জনসমর্থনের প্রমাণ দিতে বিশাল বিশাল বহর নিয়ে হাজির হয়েছেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

নয়াপল্টনে পুলিশ পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে : রিজভী

আপডেট টাইম : ১০:০৫:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

অালোর জগত ডেস্ক :   বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, মনোনয়ন ফরম নিতে আসা নেতা-কর্মীদের ওপর বিনা উসকানিতে পরিকল্পিত হামলা করেছে পুলিশ। আজ বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, গত তিন ধরে নেতা-কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে আসে। পল্টনে স্বাভাবিক পরিবেশ বিরাজ করছিল। নির্বাচন কমিশন পুলিশ দিয়ে এ হামলা চালাচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

এর আগে, দুপুর ১টায় ১টার দিকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় উপস্থিত নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাক্কা ধাক্কি হলে হেলমেট কেড়ে নেয় নেতাকর্মীরা। পুলিশ রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ও কাঁদুনে গ্যাস নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। উপস্থিত নেতাকর্মীরা আশেপাশের মার্কেট, হোটেল, শপিং মল ও গলিতে অবস্থান নেয়।

উল্লেখ্য, তৃতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলছিল। এ উপলক্ষে গত দুই দিনের মত আজও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। সকাল থেকেই মিছিল নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসতে থাকেন। রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন হাতে স্লোগান দিয়ে, ব্যান্ড বাজিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও এর আশপাশের সড়কে মিছিল করেছেন।

নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে সাত দফা এক দাবি, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, তারেক রহমানের মুক্তি চাই, রাজপথ ছাড়ব না ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছিলেন। অনেকে জনসমর্থনের প্রমাণ দিতে বিশাল বিশাল বহর নিয়ে হাজির হয়েছেন।