ঢাকা ০৯:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নাইজেরিয়ায় আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৩০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ার বর্নো প্রদেশে এক ভয়াবহ আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৪০ জন। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে দেশটিতে চরমপন্থি জঙ্গি গোষ্টী বোকো হারাম সাধারণতঃ এ জাতীয় হামলা চালিয়ে থাকে।

আরো পড়ুন :  চীনে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১১

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, রোববার রাতে রাজধানী মাইডুগুরি থেকে ৩৮ কিলোমিটার দূরে কোন্ডুগা এলাকার একটি হলে টিভি লাগিয়ে ফুটবল ম্যাচ দেখছিলেন স্থানীয়রা। সেসময় বাইরে থেকে হলের ভিতরে ঢুকতে চায় এক ব্যক্তি। এই নিয়ে হল মালিকের সঙ্গে বচসা শুরু হয় তার। তখনই নিজের শরীরে থাকা বোমা ফাটিয়ে দেয় সে। সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটায় হলের বাইরে চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা তার বাকি দুই সঙ্গীও। এর জেরে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান নয়জন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকরা আরো ২১ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই বিস্ফোরণের পিছনে বোকো হারাম জঙ্গিরা আছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি তারা।

সোমবার বর্নো প্রদেশের জরুরি বিপর্যয় মোকাবিলা সংস্থার প্রধান উসমান কাচাল্লা জানান, প্রথমে ঘটনাস্থল থেকে নয়জনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। পরে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে ভরতি করে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে।

২০০৯ সালে উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম শুরু করে বোকো হারাম জঙ্গিরা। কিছুদিন বাদে পার্শ্ববর্তী নিগার, চাদ এবং ক্যামেরনে নিজেদের জাল বিস্তার করে তারা। সমান্তরাল প্রশাসন চালানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও জনবহুল এলাকায় জঙ্গি হামলা চালাতে শুরু করে। তাদের নৃংশস মানসিকতার জেরে খুন হতে হয় ২৭ হাজারের বেশি মানুষকে। ঘরছাড়া হন ২০ লক্ষ মানুষ। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, গত ছ’বছরে ৩৫ হাজারের বেশি মানুষকে হত্যা করেছে আইএস-এর মদতপুষ্ট বোকো হারাম জঙ্গিরা।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

নাইজেরিয়ায় আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৩০

আপডেট টাইম : ০২:৪৫:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ার বর্নো প্রদেশে এক ভয়াবহ আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৪০ জন। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে দেশটিতে চরমপন্থি জঙ্গি গোষ্টী বোকো হারাম সাধারণতঃ এ জাতীয় হামলা চালিয়ে থাকে।

আরো পড়ুন :  চীনে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১১

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, রোববার রাতে রাজধানী মাইডুগুরি থেকে ৩৮ কিলোমিটার দূরে কোন্ডুগা এলাকার একটি হলে টিভি লাগিয়ে ফুটবল ম্যাচ দেখছিলেন স্থানীয়রা। সেসময় বাইরে থেকে হলের ভিতরে ঢুকতে চায় এক ব্যক্তি। এই নিয়ে হল মালিকের সঙ্গে বচসা শুরু হয় তার। তখনই নিজের শরীরে থাকা বোমা ফাটিয়ে দেয় সে। সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটায় হলের বাইরে চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা তার বাকি দুই সঙ্গীও। এর জেরে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান নয়জন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকরা আরো ২১ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই বিস্ফোরণের পিছনে বোকো হারাম জঙ্গিরা আছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি তারা।

সোমবার বর্নো প্রদেশের জরুরি বিপর্যয় মোকাবিলা সংস্থার প্রধান উসমান কাচাল্লা জানান, প্রথমে ঘটনাস্থল থেকে নয়জনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। পরে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে ভরতি করে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে।

২০০৯ সালে উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম শুরু করে বোকো হারাম জঙ্গিরা। কিছুদিন বাদে পার্শ্ববর্তী নিগার, চাদ এবং ক্যামেরনে নিজেদের জাল বিস্তার করে তারা। সমান্তরাল প্রশাসন চালানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও জনবহুল এলাকায় জঙ্গি হামলা চালাতে শুরু করে। তাদের নৃংশস মানসিকতার জেরে খুন হতে হয় ২৭ হাজারের বেশি মানুষকে। ঘরছাড়া হন ২০ লক্ষ মানুষ। যদিও যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, গত ছ’বছরে ৩৫ হাজারের বেশি মানুষকে হত্যা করেছে আইএস-এর মদতপুষ্ট বোকো হারাম জঙ্গিরা।