ঢাকা ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

মালয়েশিয়ায় ২২ বাংলাদেশি আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  মালয়েশিয়ার মালাকায় অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেফতারে অভিযান চালিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন পুলিশ। অভিযানে ২২ বাংলাদেশিসহ ৩১ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে।  আজ শুক্রবার মালয়েশিয়ার মালাকায় ভোর ৫টার দিকে ডুরিয়ান টুংগাল, সুংগায় পাতুত এবং বুকিত কাতিলের শুরু হওয়া অভিযানে আটক করা হয় ২৩০ জন বিভিন্ন দেশের অভিবাসীকে।

আটকদের মধ্যে ২২ বাংলাদেশিসহ ৯ ইন্দোনেশীয় ব্যক্তি রয়েছেন। বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তাদের আটক করা হয়। আটকদের বিরুদ্ধে ইমিগ্রেশন রেগুলেশন, ১৯৬৩, ধারা ৬ (১) (গ) এবং ধারায় ১৫ (১) (গ) গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

অভিবাসী বিভাগের মহাপরিচালক বলেন, বিদেশি শ্রমিকরা আজ বৈধ, কাল অবৈধ। বিগত দিনে আউটসোর্সিং কোম্পানির মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক বিদেশি শ্রমিকরা ভিসা করে মালয়েশিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চলের কলকারখানায় কাজ করতো। যা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারকে কালো অধ্যায় হিসেবে বিবেচিত করা হয়। বিদেশি শ্রমিকদের বাসস্থান ও কিঞ্চিৎ মজুরিতে জিম্মি করে বছরের পর বছর কাজ করানো হয়েছে।

ইমিগ্রেশনের অফিসার নার আজমান ইব্রাহিম বলেন, চাকরির শর্ত লঙ্ঘন করায় কয়েকজন মালিককেও গ্রেফতার করা হয়।

 

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

মালয়েশিয়ায় ২২ বাংলাদেশি আটক

আপডেট টাইম : ০৭:৫৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  মালয়েশিয়ার মালাকায় অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেফতারে অভিযান চালিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন পুলিশ। অভিযানে ২২ বাংলাদেশিসহ ৩১ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে।  আজ শুক্রবার মালয়েশিয়ার মালাকায় ভোর ৫টার দিকে ডুরিয়ান টুংগাল, সুংগায় পাতুত এবং বুকিত কাতিলের শুরু হওয়া অভিযানে আটক করা হয় ২৩০ জন বিভিন্ন দেশের অভিবাসীকে।

আটকদের মধ্যে ২২ বাংলাদেশিসহ ৯ ইন্দোনেশীয় ব্যক্তি রয়েছেন। বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তাদের আটক করা হয়। আটকদের বিরুদ্ধে ইমিগ্রেশন রেগুলেশন, ১৯৬৩, ধারা ৬ (১) (গ) এবং ধারায় ১৫ (১) (গ) গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

অভিবাসী বিভাগের মহাপরিচালক বলেন, বিদেশি শ্রমিকরা আজ বৈধ, কাল অবৈধ। বিগত দিনে আউটসোর্সিং কোম্পানির মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক বিদেশি শ্রমিকরা ভিসা করে মালয়েশিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চলের কলকারখানায় কাজ করতো। যা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারকে কালো অধ্যায় হিসেবে বিবেচিত করা হয়। বিদেশি শ্রমিকদের বাসস্থান ও কিঞ্চিৎ মজুরিতে জিম্মি করে বছরের পর বছর কাজ করানো হয়েছে।

ইমিগ্রেশনের অফিসার নার আজমান ইব্রাহিম বলেন, চাকরির শর্ত লঙ্ঘন করায় কয়েকজন মালিককেও গ্রেফতার করা হয়।