ঢাকা ০৯:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

হোমনায় ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

কুমিল্লার হোমনা উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারের পূর্ব দিকের উত্তর পাশে আবাত্তার বিল এলাকার ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলন করে বিনোদন মূলক বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।অভিযোগ উঠেছে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার তাল তলী গ্রামের মতিন মিয়ার ছেলে হারুন চানের বিরুদ্ধে। সে হোমনা উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারে একটি আস্থানা নির্মাণ করেছে।কথিত আছে সে সোলেমান শাহ’র মাজার থেকে নিজেকে সোলেমান শাহ’র ধর্ম পুত্র দাবি করে আসছে বলে জানা গেছে। অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রশাসনের নাকের ডগায় হারুন চান উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারের পূর্ব পাশের উত্তর দিকের আবাত্তার বিলসহ আশে পাশের মানুষের ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলন করে নিজের বাড়ি নির্মাণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসনের নাকের ডগায়।এতে শত শত কৃষকের ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।খাল বিলের বালুও কেটে নিয়ে যাচ্ছে বালুখোকো হারুন চান।অবৈধ বালু উত্তোলন কারী হারুন চানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ার পরও আইনানুগ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না বলে এমন অভিযোগ উঠেছে কৃষকদের কাছ থেকে।বালুখেকো হারুন চানের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় এমপি অধ্যক্ষ আবদুল মজিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা।

আপলোডকারীর তথ্য

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

হোমনায় ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

আপডেট টাইম : ০৩:১৫:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২৪

কুমিল্লার হোমনা উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারের পূর্ব দিকের উত্তর পাশে আবাত্তার বিল এলাকার ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলন করে বিনোদন মূলক বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।অভিযোগ উঠেছে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার তাল তলী গ্রামের মতিন মিয়ার ছেলে হারুন চানের বিরুদ্ধে। সে হোমনা উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারে একটি আস্থানা নির্মাণ করেছে।কথিত আছে সে সোলেমান শাহ’র মাজার থেকে নিজেকে সোলেমান শাহ’র ধর্ম পুত্র দাবি করে আসছে বলে জানা গেছে। অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রশাসনের নাকের ডগায় হারুন চান উপজেলার পঞ্চবটি সোলেমান শাহ’র মাজারের পূর্ব পাশের উত্তর দিকের আবাত্তার বিলসহ আশে পাশের মানুষের ফসলি জমি কেটে বালু উত্তোলন করে নিজের বাড়ি নির্মাণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসনের নাকের ডগায়।এতে শত শত কৃষকের ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।খাল বিলের বালুও কেটে নিয়ে যাচ্ছে বালুখোকো হারুন চান।অবৈধ বালু উত্তোলন কারী হারুন চানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ার পরও আইনানুগ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না বলে এমন অভিযোগ উঠেছে কৃষকদের কাছ থেকে।বালুখেকো হারুন চানের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় এমপি অধ্যক্ষ আবদুল মজিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা।