ঢাকা ০৯:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ধামরাইয়ে সেলফি পরিবহন কেরে নিলো বিসিএস কর্মকর্তাসহ তিন জনের প্রান!

ধামরাই ও সাভারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক বিসিএস কর্মকর্তাসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দুই জন!

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৯টারর মধ্যে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ঢাকার ধামরাইয়ের থানা বাসস্ট্যান্ড ও সাভারের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রান্তিক গেইট সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন— টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার মোকছেদ আলীর ছেলে ও ৪১তম বিসিএস এ শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত মো. রুবেল পারভেজ, মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার মমতাজ উদ্দিনের ছেলে মো.আব্দুল মান্নান। অপর জন হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলার কসবা থানার মধুপুর গ্রামের মোহাম্মদ খলিলের ছেলে মো. ইসমাইল হোসেন (১৭)। আহত একজন হলেন— ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলার কসবা থানার মধুপুর গ্রামের মোহাম্মদ খলিল। তবে অপর আহতের কোন তথ্য পাওয়া যায় নি।
ফায়ার সার্ভিস ও হাইওয়ে পুলিশ জানায়, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই থানা স্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিন জন। এসময় সেলফি পরিবহনের দুই বাস রেষারেষি করে একে অপরকে ওভারটেক করার চেষ্টা করলে পথচারী তিনজনকেই চাপা দেয়। এঘটনায় ঘটনাস্থলেই পারভেজ ও মান্নান মারা যায়। অপরজনকে উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুর রিফফাত আরা বলেন, আমাদের হাসপাতালে দুইজনকে আনা হয়েছিল। একজনের বয়স ৪০ আরেকজনের ৪২। এদের মধ্যে একজন মারা গেছেন। অপরজনকে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

অপরদিকে, ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার হাইওয়ে থানার সামনে মোটরসাইকেল নিয়ে ইউটার্ন নিচ্ছিলেন বাবা আব্দুল মালেক ও ছেলে ইসমাইল। এসময় আরিচাগামী একটি কাভার্ডভ্যান তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ছেলে ইসমাইল। আব্দুল মালেক গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

সাভার হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবুল হাসান বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সেলফি পরিবহনের একটি বাস রেখে পালিয়ে গেছে এর চালক ও সহযোগী। বাসটি জব্দ করা হয়েছে। একই সঙ্গে নিহতদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপলোডকারীর তথ্য

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

ধামরাইয়ে সেলফি পরিবহন কেরে নিলো বিসিএস কর্মকর্তাসহ তিন জনের প্রান!

আপডেট টাইম : ০৩:২৯:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

ধামরাই ও সাভারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক বিসিএস কর্মকর্তাসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দুই জন!

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৯টারর মধ্যে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ঢাকার ধামরাইয়ের থানা বাসস্ট্যান্ড ও সাভারের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রান্তিক গেইট সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন— টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার মোকছেদ আলীর ছেলে ও ৪১তম বিসিএস এ শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত মো. রুবেল পারভেজ, মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার মমতাজ উদ্দিনের ছেলে মো.আব্দুল মান্নান। অপর জন হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলার কসবা থানার মধুপুর গ্রামের মোহাম্মদ খলিলের ছেলে মো. ইসমাইল হোসেন (১৭)। আহত একজন হলেন— ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলার কসবা থানার মধুপুর গ্রামের মোহাম্মদ খলিল। তবে অপর আহতের কোন তথ্য পাওয়া যায় নি।
ফায়ার সার্ভিস ও হাইওয়ে পুলিশ জানায়, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই থানা স্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিন জন। এসময় সেলফি পরিবহনের দুই বাস রেষারেষি করে একে অপরকে ওভারটেক করার চেষ্টা করলে পথচারী তিনজনকেই চাপা দেয়। এঘটনায় ঘটনাস্থলেই পারভেজ ও মান্নান মারা যায়। অপরজনকে উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুর রিফফাত আরা বলেন, আমাদের হাসপাতালে দুইজনকে আনা হয়েছিল। একজনের বয়স ৪০ আরেকজনের ৪২। এদের মধ্যে একজন মারা গেছেন। অপরজনকে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

অপরদিকে, ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার হাইওয়ে থানার সামনে মোটরসাইকেল নিয়ে ইউটার্ন নিচ্ছিলেন বাবা আব্দুল মালেক ও ছেলে ইসমাইল। এসময় আরিচাগামী একটি কাভার্ডভ্যান তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ছেলে ইসমাইল। আব্দুল মালেক গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

সাভার হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবুল হাসান বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সেলফি পরিবহনের একটি বাস রেখে পালিয়ে গেছে এর চালক ও সহযোগী। বাসটি জব্দ করা হয়েছে। একই সঙ্গে নিহতদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।