০৮:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

খুলনায় অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামাদি উদ্ধার, আটক ১

কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থ একটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় অভিযুক্ত মোঃ মেহেদী হাসান(৩১) অবৈধ ভাবে বৈধ কাগজ পত্র ব্যতীত সরকারী অনুমোদন ছাড়া ভিওআইপি সিম বক্স ও ভিওআইপি সরঞ্জামাদি অবৈধ ভাবে স্থাপন করতঃ পরিচালনা পূর্বক বাংলাদেশ ও বর্হিবিশ্বে অবৈধ ভাবে যোগাযোগ এর মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা সরকারী রাজস্ব ফাঁকি দিয়া অবৈধ ভাবে ব্যাবসা পরিচালনা করে আসছিল।

ভিওআইপি এর মাধ্যমে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপন করে অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক কল রাউট করতো। টেলিযোগাযোগ সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকারের রাজস্ব ও চার্জ ফাঁকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে যান্ত্রিক, ভার্চুয়াল ও সফটওয়্যার ভিত্তিক কৌশল অবলম্বন করে অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক পেমেন্ট ও রিচার্জ সেবা প্রদান করে আসছিল। ভিওআইপির চক্রটি বিটিআরসির চোখ ফাঁকি দিয়ে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ টেলিযোগাযোগ সেবা দিয়ে যাচ্ছিল। পরবর্তীতে র‌্যাবের গোয়েন্দা তথ্যের মধ্যমে উক্ত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৬ এর একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে এবং অভিযান অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা র‍্যাব- ৬ (স্পেশাল কোম্পানী) ও র‌্যাব-৩ এর একটি চৌকস অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থ একটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় বাসার ভিতরে ভিওআইপি সিম বক্স ও ভিওআইপি সরঞ্জামাদি অবৈধ ভাবে স্থাপন করতঃ অবৈধ ব্যাবসা পরিচালনা করছে। প্রাপ্ত তথ্যোর ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের লক্ষ্যে আভিযানিক দলটি একই তারিখ কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থেএকটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় অভিযান পরিচালনা করে আাসমী ১। মোঃ মেহেদী হাসান(৩১), থানা-খালিশপুর, জেলা-কেএমপি খুলনা’কে গ্রেফতার করে এবং অবৈধ ভাবে বৈধ কাগজ পত্র ব্যতীত সরকারী অনুমোদন ছাড়া ভিওআইপি কাজে ব্যবহৃত উক্ত আসামীর নিকট হতে (ক) ১৮টি ভিওআইপি সিমবক্স (খ) ০২ টি মাল্টিপ্লাগ (গ) ০১টি ল্যাপটপ, (ঘ) ০২টি মোবাইল ফোন, (ঙ) ১৯টি রাউটার, (চ) ০৩টি রাউটার সুইজ, (ছ) ৩,৭০০ পিস সিমকার্ড, (জ) ২০টি বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল (ঝ) ২৪টি চার্জার (ঞ) ০৬টি এ্যাডেপটার (ট) ১৫টি ইউটিপি লেন ক্যাবল (ঠ) ১০টি পাওয়ার ক্যাবল (ড) ০২টি পেনড্রাইভ (ঢ) ০৩টি মডেমসহ উদ্ধার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী অবৈধ ব্যবসাটির সাথে জড়িত বিষয়টি স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Md. Mofajjal

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস রিপোর্টার্স ফোরামের শ্রদ্ধা

খুলনায় অবৈধ ভিওআইপি সরঞ্জামাদি উদ্ধার, আটক ১

Update Time : ০১:৪২:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩

কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থ একটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় অভিযুক্ত মোঃ মেহেদী হাসান(৩১) অবৈধ ভাবে বৈধ কাগজ পত্র ব্যতীত সরকারী অনুমোদন ছাড়া ভিওআইপি সিম বক্স ও ভিওআইপি সরঞ্জামাদি অবৈধ ভাবে স্থাপন করতঃ পরিচালনা পূর্বক বাংলাদেশ ও বর্হিবিশ্বে অবৈধ ভাবে যোগাযোগ এর মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা সরকারী রাজস্ব ফাঁকি দিয়া অবৈধ ভাবে ব্যাবসা পরিচালনা করে আসছিল।

ভিওআইপি এর মাধ্যমে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপন করে অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক কল রাউট করতো। টেলিযোগাযোগ সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকারের রাজস্ব ও চার্জ ফাঁকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে যান্ত্রিক, ভার্চুয়াল ও সফটওয়্যার ভিত্তিক কৌশল অবলম্বন করে অবৈধভাবে আন্তর্জাতিক পেমেন্ট ও রিচার্জ সেবা প্রদান করে আসছিল। ভিওআইপির চক্রটি বিটিআরসির চোখ ফাঁকি দিয়ে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ টেলিযোগাযোগ সেবা দিয়ে যাচ্ছিল। পরবর্তীতে র‌্যাবের গোয়েন্দা তথ্যের মধ্যমে উক্ত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৬ এর একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে এবং অভিযান অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা র‍্যাব- ৬ (স্পেশাল কোম্পানী) ও র‌্যাব-৩ এর একটি চৌকস অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থ একটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় বাসার ভিতরে ভিওআইপি সিম বক্স ও ভিওআইপি সরঞ্জামাদি অবৈধ ভাবে স্থাপন করতঃ অবৈধ ব্যাবসা পরিচালনা করছে। প্রাপ্ত তথ্যোর ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের লক্ষ্যে আভিযানিক দলটি একই তারিখ কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানাধীন মুজগুন্নি আবাসিক এলাকাস্থেএকটি ভাড়া বাসার ৫ম তলায় অভিযান পরিচালনা করে আাসমী ১। মোঃ মেহেদী হাসান(৩১), থানা-খালিশপুর, জেলা-কেএমপি খুলনা’কে গ্রেফতার করে এবং অবৈধ ভাবে বৈধ কাগজ পত্র ব্যতীত সরকারী অনুমোদন ছাড়া ভিওআইপি কাজে ব্যবহৃত উক্ত আসামীর নিকট হতে (ক) ১৮টি ভিওআইপি সিমবক্স (খ) ০২ টি মাল্টিপ্লাগ (গ) ০১টি ল্যাপটপ, (ঘ) ০২টি মোবাইল ফোন, (ঙ) ১৯টি রাউটার, (চ) ০৩টি রাউটার সুইজ, (ছ) ৩,৭০০ পিস সিমকার্ড, (জ) ২০টি বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল (ঝ) ২৪টি চার্জার (ঞ) ০৬টি এ্যাডেপটার (ট) ১৫টি ইউটিপি লেন ক্যাবল (ঠ) ১০টি পাওয়ার ক্যাবল (ড) ০২টি পেনড্রাইভ (ঢ) ০৩টি মডেমসহ উদ্ধার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী অবৈধ ব্যবসাটির সাথে জড়িত বিষয়টি স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে কেএমপি খুলনার খালিশপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।