ঢাকা ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

গণতন্ত্র নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশে চলমান গণতন্ত্র যারাই নষ্ট করতে চাইবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ।

রোববার (১৯ নভেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্কটল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি স্কটল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের সদস্যদের বলেছি, আমরা মনোনয়নপত্র দাখিল করব। আপনারা ভালো দিনে এসেছেন। আমরা দেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চাই। সে কারণে প্রাতিষ্ঠানিক যা যা করার আছে আমরা সবকিছু করব।

প্রতিনিধি দলটির সাথে আলাপকালে ড. মোমেন বলেন, আমরা বায়োমেট্রিক ব্যালট, আইডি, স্বচ্ছ ব্যালট বক্স ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন তৈরি করেছি। অবাধ নির্বাচনের জন্য আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। গণতন্ত্রে আমাদের পূর্ণ বিশ্বাস আছে। আমরা বিশ্বাস করি সরকার পরিবর্তনের হাতিয়ার হচ্ছে নির্বাচন। আমরা গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে চাই, কেউ গণতন্ত্র নষ্ট করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা শক্ত পদক্ষেপ নেব।

ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আমাদের দেশে অনেকগুলো রাজনৈতিক দল আছে। যারা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় তৈরি হয়নি, তারা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে বিভিন্ন অজুহাত তৈরি করছে। গত ২৮ অক্টোবর আমরা তার একটা চিত্র দেখেছি। তারা শান্তিপূর্ণ শোভাযাত্রার নামে যে কাণ্ড করেছে তা গ্রহণযোগ্য নয়।

প্রতিনিধি দলের মধ্যে তিনজন সংসদ সদস্য, একজন কনজারভেটিভ, এককজন লেবার পার্টি ও একজন গ্রিন পার্টির সদস্য ছিলেন। স্কটল্যান্ডের ছয় সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে জলবায়ু, রোহিঙ্গা, বিনিয়োগ ও বাণিজ্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান ড. মোমেন।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

গণতন্ত্র নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট টাইম : ০৭:৪৬:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩

দেশে চলমান গণতন্ত্র যারাই নষ্ট করতে চাইবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ।

রোববার (১৯ নভেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্কটল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি স্কটল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের সদস্যদের বলেছি, আমরা মনোনয়নপত্র দাখিল করব। আপনারা ভালো দিনে এসেছেন। আমরা দেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চাই। সে কারণে প্রাতিষ্ঠানিক যা যা করার আছে আমরা সবকিছু করব।

প্রতিনিধি দলটির সাথে আলাপকালে ড. মোমেন বলেন, আমরা বায়োমেট্রিক ব্যালট, আইডি, স্বচ্ছ ব্যালট বক্স ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন তৈরি করেছি। অবাধ নির্বাচনের জন্য আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। গণতন্ত্রে আমাদের পূর্ণ বিশ্বাস আছে। আমরা বিশ্বাস করি সরকার পরিবর্তনের হাতিয়ার হচ্ছে নির্বাচন। আমরা গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে চাই, কেউ গণতন্ত্র নষ্ট করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা শক্ত পদক্ষেপ নেব।

ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আমাদের দেশে অনেকগুলো রাজনৈতিক দল আছে। যারা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় তৈরি হয়নি, তারা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে বিভিন্ন অজুহাত তৈরি করছে। গত ২৮ অক্টোবর আমরা তার একটা চিত্র দেখেছি। তারা শান্তিপূর্ণ শোভাযাত্রার নামে যে কাণ্ড করেছে তা গ্রহণযোগ্য নয়।

প্রতিনিধি দলের মধ্যে তিনজন সংসদ সদস্য, একজন কনজারভেটিভ, এককজন লেবার পার্টি ও একজন গ্রিন পার্টির সদস্য ছিলেন। স্কটল্যান্ডের ছয় সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে জলবায়ু, রোহিঙ্গা, বিনিয়োগ ও বাণিজ্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান ড. মোমেন।