ঢাকা ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

ইন্দোনেশিয়ায় সুনামিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৭৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ইন্দোনেশিয়ার জাভা ও সুমাত্রা দ্বীপে শনিবারের সুনামিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে অন্তত দাঁড়িয়েছে ৩৭৩ জনে । সোমবার দেশটির কর্মকর্তারা নিহতের এই সংখ্যা জানিয়েছেন।

কর্মকর্তারা জানান, উদ্ধারকর্মীরা ভারী যন্ত্রপাতি ও হাত দিয়েধ্বংসস্তূপ সরিয়ে নিহত ও জীবিতদের উদ্ধারের চেষ্টা করছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

কোনও ধরনের সতর্কতা ছাড়াই শনিবার রাতে সুন্দা প্রণালীতে আঘাত হানে এই সুনামি। এর আঘাতে আহত হয়েছেন সহস্রাধিক মানুষ। মঙ্গলবার পর্যন্ত উঁচু ঢেউয়ের আশঙ্কার কারণে উপকূলের ৩ হাজার বাসিন্দাকে উঁচু স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১২৮ জন নিখোঁজ ও ১৪৫৯ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে ইন্দোনেশিয়া৷ সেপ্টেম্বর মাসে ভয়াবহ ভূমিকম্প ও সুনামি হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়৷ আগ্নেয়দ্বীপ ক্র্যাকাটোয়ায় ১৮৮৩ সালে ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতে কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। ওই সময়ও ১৩৫ ফুট উঁচু ঢেউ নিয়ে সৈকতে আঘাত হানে সুনামি। এতে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ সে সময় সাগরে ভেসে যায়। কিন্তু দীর্ঘদিন সুপ্ত থাকার পর সাম্প্রতিক সময়ে ক্র্যাকাটোয়া আবার সক্রিয় হয়ে ওঠে। গত শুক্রবার ওই আগ্নেয়গিরি থেকে প্রায় সোয়া দুই মিনিট উদগীরণ হয়। এর ফলে পর্বতের এক হাজার ৩০০ ফুট উঁচু পর্যন্ত ছাইয়ের মেঘ ছড়িয়ে পড়ে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত।

ইন্দোনেশিয়ায় সুনামিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৭৩

আপডেট টাইম : ০৬:০৮:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ইন্দোনেশিয়ার জাভা ও সুমাত্রা দ্বীপে শনিবারের সুনামিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে অন্তত দাঁড়িয়েছে ৩৭৩ জনে । সোমবার দেশটির কর্মকর্তারা নিহতের এই সংখ্যা জানিয়েছেন।

কর্মকর্তারা জানান, উদ্ধারকর্মীরা ভারী যন্ত্রপাতি ও হাত দিয়েধ্বংসস্তূপ সরিয়ে নিহত ও জীবিতদের উদ্ধারের চেষ্টা করছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

কোনও ধরনের সতর্কতা ছাড়াই শনিবার রাতে সুন্দা প্রণালীতে আঘাত হানে এই সুনামি। এর আঘাতে আহত হয়েছেন সহস্রাধিক মানুষ। মঙ্গলবার পর্যন্ত উঁচু ঢেউয়ের আশঙ্কার কারণে উপকূলের ৩ হাজার বাসিন্দাকে উঁচু স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১২৮ জন নিখোঁজ ও ১৪৫৯ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে ইন্দোনেশিয়া৷ সেপ্টেম্বর মাসে ভয়াবহ ভূমিকম্প ও সুনামি হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়৷ আগ্নেয়দ্বীপ ক্র্যাকাটোয়ায় ১৮৮৩ সালে ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতে কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। ওই সময়ও ১৩৫ ফুট উঁচু ঢেউ নিয়ে সৈকতে আঘাত হানে সুনামি। এতে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ সে সময় সাগরে ভেসে যায়। কিন্তু দীর্ঘদিন সুপ্ত থাকার পর সাম্প্রতিক সময়ে ক্র্যাকাটোয়া আবার সক্রিয় হয়ে ওঠে। গত শুক্রবার ওই আগ্নেয়গিরি থেকে প্রায় সোয়া দুই মিনিট উদগীরণ হয়। এর ফলে পর্বতের এক হাজার ৩০০ ফুট উঁচু পর্যন্ত ছাইয়ের মেঘ ছড়িয়ে পড়ে।