ঢাকা ০৩:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

স্ত্রীর সঙ্গে আলাপ থাকবে প্রেমিকারও! ওপেন রিলেশনশিপে বোঝাপড়া হয় কী ভাবে?

লাইফস্টাইল ডেস্ক :
সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদল আসছে প্রেমের সমীকরণেও। বিভিন্ন কারণে ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ এখন তরুণ-তরুণীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। ফেসবুকে নজর রাখলেই চোখে পড়ে, কেউ কেউ দাবি করেছেন, তাঁরা ‘ওপেন রিলেশনশিপে’ আছেন। একগামী সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে এসে বহুগামী সম্পর্কের পথে হাঁটছে যুব প্রজন্ম।

Questions To Ask Yourself About Being Polyamorous & The Differences Between  Monogamy Vs. Open Relationships | YourTango

ওপেন রিলেশনশিপ বিষয়টি কী?

সঙ্গীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ইতি না টেনেই, সঙ্গীর সম্মতি নিয়ে তৃতীয় কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোই হল ‘ওপেন রিলেশনশিপ’। ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ অবশ্য কোনও রাখঢাক নেই। এক সঙ্গীর থেকে অন্য সম্পর্কগুলি লুকোনোর কোনও ঝামেলা নেই। সবটাই খোলা বইয়ের মতো। পশ্চিমের দেশগুলিতে এই প্রকার সম্পর্কের কথা বেশ কিছু বছর ধরেই শোনা যায়। ইদানীং ভারতেও যুগলরা ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ যাচ্ছেন। ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ মানেই কেবল যৌনতা নয়, যুবক-যুবতীরা নিছক ভালোবাসার টানে কিংবা মানসিক ভাবে কারও উপর নির্ভর হয়ে পড়েন এমন সম্পর্কে। প্রত্যেক ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ একটা নির্দিষ্ট গণ্ডী থাকে, তাঁরা অন্যান্য সঙ্গীর সঙ্গে কেমন সম্পর্কে জড়াচ্ছেন, তা নিয়ে প্রধান সঙ্গীর কাছে স্পষ্ট ধারণাও থাকে।

ওপেন রিলেশনশিপে যাওয়ার আগে কী কী বিষয় মাথায় রাখবেন?

১) যে কোনও সম্পর্কের মতো ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এর ভীতও বিশ্বাসের উপর দাঁড়িয়ে। ওপেন রিলেশনশিপে যাওয়ার আগে দু’জনকেই একে অপরের কাছে স্পষ্ট করতে হবে, নিজেদের সম্পর্ক থেকে ঠিক কী চাইছেন দু’জনে। এমনটা হতেই পারে যে, আপনি ঠিক যা চাইছেন, তা আপনার সঙ্গী চান না। ঠিক কেমন হবে দু’জনের সম্পর্কের সমীকরণ, তা খোলাখুলি আলোচনা করে তবেই অন্য সম্পর্কে যান। সম্পর্ক শুরু হওয়ার পরে অন্য কাউকে মনে ধরলে সেটাও সঙ্গীকে সোজাসুজি জানিয়ে ফেলুন।

২) এই ধরনের সম্পর্কে কিন্তু আপনি একাই একাধিক সম্পর্কে যাবেন, বিষয়টা তেমন নয়। আপনার সঙ্গী যখন অন্য সম্পর্কে যেতে চাইবেন, তাতেও কিন্তু আপনাকে সম্মতি দিতে হবে। তাঁর উপর কোনও রকম শর্ত চাপিয়ে দিলে চলবে না।

৩) সম্পর্কে যৌন ঈর্ষা খুবই স্বাভাবিক। ওপেন রিলেশনশিপে কিন্তু এর কোনও জায়গা নেই। আপনার সঙ্গী আপনাকে যতটা গুরুত্ব দিচ্ছেন, ততটাই গুরুত্ব অন্য কাউকে দিলে ঈর্ষাকাতর হয়ে পড়লে চলবে না। অনেকেই ভাবেন হবেন না, কিন্তু বাস্তবে এই ঈর্ষাকাতরতাই অনেক ওপেন রিলেশনশিপের সমীকরণ বদলে দেন।

৪) এই ধরনে সম্পর্কে থাকলে যৌনতা নিয়ে বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে। এই ধরনের সম্পর্কে থাকলে যৌনরোগের ঝুঁকি অনেক বেশি। তাই গর্ভনিরোধক ব্যবহার সম্পর্কে সজাগ থাকা জরুরি।

৫) সম্পর্কে যাওয়ার আগে সময় নিন। নিজেকে বার বার প্রশ্ন করুন, এমন সম্পর্কই আপনি চাইছেন তো? জীবনটা খেলনা নয়, জীবন অনেক দামি। তাই যে কোনও কাজ করার আগে অবশ্যই সময় নিয়ে করুন।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

স্ত্রীর সঙ্গে আলাপ থাকবে প্রেমিকারও! ওপেন রিলেশনশিপে বোঝাপড়া হয় কী ভাবে?

আপডেট টাইম : ০৭:০৫:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর ২০২৩

লাইফস্টাইল ডেস্ক :
সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদল আসছে প্রেমের সমীকরণেও। বিভিন্ন কারণে ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ এখন তরুণ-তরুণীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। ফেসবুকে নজর রাখলেই চোখে পড়ে, কেউ কেউ দাবি করেছেন, তাঁরা ‘ওপেন রিলেশনশিপে’ আছেন। একগামী সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে এসে বহুগামী সম্পর্কের পথে হাঁটছে যুব প্রজন্ম।

Questions To Ask Yourself About Being Polyamorous & The Differences Between  Monogamy Vs. Open Relationships | YourTango

ওপেন রিলেশনশিপ বিষয়টি কী?

সঙ্গীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ইতি না টেনেই, সঙ্গীর সম্মতি নিয়ে তৃতীয় কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোই হল ‘ওপেন রিলেশনশিপ’। ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ অবশ্য কোনও রাখঢাক নেই। এক সঙ্গীর থেকে অন্য সম্পর্কগুলি লুকোনোর কোনও ঝামেলা নেই। সবটাই খোলা বইয়ের মতো। পশ্চিমের দেশগুলিতে এই প্রকার সম্পর্কের কথা বেশ কিছু বছর ধরেই শোনা যায়। ইদানীং ভারতেও যুগলরা ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ যাচ্ছেন। ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ মানেই কেবল যৌনতা নয়, যুবক-যুবতীরা নিছক ভালোবাসার টানে কিংবা মানসিক ভাবে কারও উপর নির্ভর হয়ে পড়েন এমন সম্পর্কে। প্রত্যেক ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এ একটা নির্দিষ্ট গণ্ডী থাকে, তাঁরা অন্যান্য সঙ্গীর সঙ্গে কেমন সম্পর্কে জড়াচ্ছেন, তা নিয়ে প্রধান সঙ্গীর কাছে স্পষ্ট ধারণাও থাকে।

ওপেন রিলেশনশিপে যাওয়ার আগে কী কী বিষয় মাথায় রাখবেন?

১) যে কোনও সম্পর্কের মতো ‘ওপেন রিলেশনশিপ’-এর ভীতও বিশ্বাসের উপর দাঁড়িয়ে। ওপেন রিলেশনশিপে যাওয়ার আগে দু’জনকেই একে অপরের কাছে স্পষ্ট করতে হবে, নিজেদের সম্পর্ক থেকে ঠিক কী চাইছেন দু’জনে। এমনটা হতেই পারে যে, আপনি ঠিক যা চাইছেন, তা আপনার সঙ্গী চান না। ঠিক কেমন হবে দু’জনের সম্পর্কের সমীকরণ, তা খোলাখুলি আলোচনা করে তবেই অন্য সম্পর্কে যান। সম্পর্ক শুরু হওয়ার পরে অন্য কাউকে মনে ধরলে সেটাও সঙ্গীকে সোজাসুজি জানিয়ে ফেলুন।

২) এই ধরনের সম্পর্কে কিন্তু আপনি একাই একাধিক সম্পর্কে যাবেন, বিষয়টা তেমন নয়। আপনার সঙ্গী যখন অন্য সম্পর্কে যেতে চাইবেন, তাতেও কিন্তু আপনাকে সম্মতি দিতে হবে। তাঁর উপর কোনও রকম শর্ত চাপিয়ে দিলে চলবে না।

৩) সম্পর্কে যৌন ঈর্ষা খুবই স্বাভাবিক। ওপেন রিলেশনশিপে কিন্তু এর কোনও জায়গা নেই। আপনার সঙ্গী আপনাকে যতটা গুরুত্ব দিচ্ছেন, ততটাই গুরুত্ব অন্য কাউকে দিলে ঈর্ষাকাতর হয়ে পড়লে চলবে না। অনেকেই ভাবেন হবেন না, কিন্তু বাস্তবে এই ঈর্ষাকাতরতাই অনেক ওপেন রিলেশনশিপের সমীকরণ বদলে দেন।

৪) এই ধরনে সম্পর্কে থাকলে যৌনতা নিয়ে বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে। এই ধরনের সম্পর্কে থাকলে যৌনরোগের ঝুঁকি অনেক বেশি। তাই গর্ভনিরোধক ব্যবহার সম্পর্কে সজাগ থাকা জরুরি।

৫) সম্পর্কে যাওয়ার আগে সময় নিন। নিজেকে বার বার প্রশ্ন করুন, এমন সম্পর্কই আপনি চাইছেন তো? জীবনটা খেলনা নয়, জীবন অনেক দামি। তাই যে কোনও কাজ করার আগে অবশ্যই সময় নিয়ে করুন।