ঢাকা ০৯:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে স্পিকার

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক :  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে গেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।আজ বিকেল ৪টার দিকে স্পিকার তার সংসদ অফিস থেকে হাসপাতালে যান।

চিকিৎসকরা বলছেন, ওবায়দুল কাদেরের তিনটি রক্তনালীতে ব্লক ধরা পড়েছে, যার একটি তারা অপসারণ করেছেন। কিন্তু জীবনশঙ্কা থাকায় কৃত্রিমভাবে তার শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উন্নত চিকিৎসার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে নেওয়ার প্রস্তুতি চললেও এই শারীরিক অবস্থায় তা সম্ভব হবে কি না- সে বিষয়ে নিশ্চিত নন চিকিৎসকরা।

হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে এনে করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে এনজিওগ্রাম শেষে তার হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লকে রিং পরানো হয়। রিং পরানোর পর তাকে কার্ডিওলজি বিভাগের সিসিইউতে রাখা হয়েছে। সকালে থেকেই তাকে দেখতে হাসপাতালের ডি-ব্লকের সামনে ভিড় করছেন দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে স্পিকার

আপডেট টাইম : ১১:২১:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক :  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে গেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।আজ বিকেল ৪টার দিকে স্পিকার তার সংসদ অফিস থেকে হাসপাতালে যান।

চিকিৎসকরা বলছেন, ওবায়দুল কাদেরের তিনটি রক্তনালীতে ব্লক ধরা পড়েছে, যার একটি তারা অপসারণ করেছেন। কিন্তু জীবনশঙ্কা থাকায় কৃত্রিমভাবে তার শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উন্নত চিকিৎসার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে নেওয়ার প্রস্তুতি চললেও এই শারীরিক অবস্থায় তা সম্ভব হবে কি না- সে বিষয়ে নিশ্চিত নন চিকিৎসকরা।

হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে এনে করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে এনজিওগ্রাম শেষে তার হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লকে রিং পরানো হয়। রিং পরানোর পর তাকে কার্ডিওলজি বিভাগের সিসিইউতে রাখা হয়েছে। সকালে থেকেই তাকে দেখতে হাসপাতালের ডি-ব্লকের সামনে ভিড় করছেন দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।