ঢাকা ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৯ এপ্রিল ২০২৪

শেরপুরে কৃষকদের ধান কেটে দিলো জেলা যুবলীগ

মুহাম্মদ আবু হেলাল, শেরপুর প্রতিনিধি :
শেরপুর জেলা  সদরের ১ নং কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে অসহায় দুজন কৃষকের প্রায় সারে ৪ বিঘা জমির পাকা ধান কেটে দেয়া হয়েছে। ২৬ এপ্রিল সোমবার কামারের চর ইউনিয়নের ডুবারচর গ্রামের আকন্দতলা বিলে কৃষক আপেল মিয়া ও হামিদুর রহমান এবার প্রায় সারে চার বিঘা জমিতে বোর ধান চাষ করেছিলেন। তারা জানান করোনা মহামারির ফলে লকডাউনের থাকায় অন্যান্য আয়ের উৎস বন্ধ থাকায় ধান কাটা ও মাড়াইয়ের খরচ নিয়ে তারা দুশ্চিন্তাগ্রস্ত ছিলেন। কয়েকদিন আগেই ক্ষেতের ধান কাটার উপযোগী হলেও অর্থাভাবে তা কাটতে পারছিলেন না তারা । অন্যদিকে এই মৌসুমে যেকোন সময় কালবৈশাখী ঝড়ের সম্ভাবনা থাকায় তারা ছিলেন দিশেহারা ।
এই সম্পর্কে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ হাবিবুর রহমান হাবিবকে কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. আঃ রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মোরাদুজ্জামান গতকাল অবগত করলে সোমবার সকালে হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে আপেল মিয়ার প্রায় ৩ বিঘা ও হামিদুর রহমানের ১.৫ বিঘা জমির ধান স্বেচ্ছাশ্রমে কেটে গোলায় তুলে দেয়া হয়। শেরপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি আমাদের জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল সারা বাংলাদেশের যুবলীগের নেতা কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে এই মহামারির সময় অসহায় কৃষকদের পাশে দাড়াতে, তাদের কষ্টে ফলানো ধান স্বেচ্ছাশ্রমে কেটে তাদের ঘরে পৌওছে দিতে। কৃষকরা এদেশের প্রাণশক্তি, কৃষি ও কৃষক বাঁচলে জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণ দ্রুত হবে। তাই আমরা শেরপুর জেলা যুবলীগ এবং কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের আয়োজনে  আমাদের দুজন অসহায় কৃষক ভাইয়ের ধান কেটে তাদের গোলায় পৌওছে দিয়েছি। শুধু তাই নয় আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সামনে রেখে শেরপুর জেলা যুবলীগ, বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন যুবলীগের সমন্বয়ে একাধিক টিম গঠন করেছি, যারা এবারের মৌসুমে সংশ্লিষ্ট  ইউনিয়ন ও এর আশেপাশের এলাকার  অসহায় কৃষকদের ধান কেটে মাড়াই করে তাদের ঘরে পৌওছে দিবে।
আমাদের এই কার্যক্রমের সার্বক্ষনিক তত্ত্বাবধায়ন করছেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম জোয়ার্দার ও সাংগঠনিক সম্পাদক জহির উদ্দিন খসরু।  শেরপুর জেলা যুবলীগের নেতা আব্দুল মতিন, মাহবুবুল আলম লিমন, শাহ মুহাম্মদ ইমতিয়াজ চৌধুরী শৈবাল, যুবলীগের জেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য সংগঠনের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী এই স্বেচ্ছায় ধান কাটা কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করেন।
Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

গ্রাম পুলিশ সদস্যকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা

শেরপুরে কৃষকদের ধান কেটে দিলো জেলা যুবলীগ

আপডেট টাইম : ০৬:২৫:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ এপ্রিল ২০২১
মুহাম্মদ আবু হেলাল, শেরপুর প্রতিনিধি :
শেরপুর জেলা  সদরের ১ নং কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে অসহায় দুজন কৃষকের প্রায় সারে ৪ বিঘা জমির পাকা ধান কেটে দেয়া হয়েছে। ২৬ এপ্রিল সোমবার কামারের চর ইউনিয়নের ডুবারচর গ্রামের আকন্দতলা বিলে কৃষক আপেল মিয়া ও হামিদুর রহমান এবার প্রায় সারে চার বিঘা জমিতে বোর ধান চাষ করেছিলেন। তারা জানান করোনা মহামারির ফলে লকডাউনের থাকায় অন্যান্য আয়ের উৎস বন্ধ থাকায় ধান কাটা ও মাড়াইয়ের খরচ নিয়ে তারা দুশ্চিন্তাগ্রস্ত ছিলেন। কয়েকদিন আগেই ক্ষেতের ধান কাটার উপযোগী হলেও অর্থাভাবে তা কাটতে পারছিলেন না তারা । অন্যদিকে এই মৌসুমে যেকোন সময় কালবৈশাখী ঝড়ের সম্ভাবনা থাকায় তারা ছিলেন দিশেহারা ।
এই সম্পর্কে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ হাবিবুর রহমান হাবিবকে কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. আঃ রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মোরাদুজ্জামান গতকাল অবগত করলে সোমবার সকালে হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে আপেল মিয়ার প্রায় ৩ বিঘা ও হামিদুর রহমানের ১.৫ বিঘা জমির ধান স্বেচ্ছাশ্রমে কেটে গোলায় তুলে দেয়া হয়। শেরপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি আমাদের জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল সারা বাংলাদেশের যুবলীগের নেতা কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে এই মহামারির সময় অসহায় কৃষকদের পাশে দাড়াতে, তাদের কষ্টে ফলানো ধান স্বেচ্ছাশ্রমে কেটে তাদের ঘরে পৌওছে দিতে। কৃষকরা এদেশের প্রাণশক্তি, কৃষি ও কৃষক বাঁচলে জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণ দ্রুত হবে। তাই আমরা শেরপুর জেলা যুবলীগ এবং কামারের চর ইউনিয়ন যুবলীগের আয়োজনে  আমাদের দুজন অসহায় কৃষক ভাইয়ের ধান কেটে তাদের গোলায় পৌওছে দিয়েছি। শুধু তাই নয় আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সামনে রেখে শেরপুর জেলা যুবলীগ, বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন যুবলীগের সমন্বয়ে একাধিক টিম গঠন করেছি, যারা এবারের মৌসুমে সংশ্লিষ্ট  ইউনিয়ন ও এর আশেপাশের এলাকার  অসহায় কৃষকদের ধান কেটে মাড়াই করে তাদের ঘরে পৌওছে দিবে।
আমাদের এই কার্যক্রমের সার্বক্ষনিক তত্ত্বাবধায়ন করছেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম জোয়ার্দার ও সাংগঠনিক সম্পাদক জহির উদ্দিন খসরু।  শেরপুর জেলা যুবলীগের নেতা আব্দুল মতিন, মাহবুবুল আলম লিমন, শাহ মুহাম্মদ ইমতিয়াজ চৌধুরী শৈবাল, যুবলীগের জেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য সংগঠনের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী এই স্বেচ্ছায় ধান কাটা কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করেন।