ঢাকা ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে চাকরি পেলো ২০ তরুণ

ফাইল ছবি

সারা দেশ থেকে আগত ৬ হাজার চাকরিপ্রার্থীর মিলনমেলার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হলো কাজী আইটি ক্যারিয়ার বুটক্যাম্প। ১১ নভেম্বর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে বুটক্যাম্পের আয়োজক ছিল কাজী আইটি সেন্টার লিমিটেড। সহযোগিতায় ছিল তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গর্ভন্যান্স প্রকল্প।

দিনব্যাপী ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৬ হাজার চাকরিপ্রার্থীকে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে সরাসরি ২০ তরুণকে কাজী আইটিতে চাকরির সুযোগ দেওয়া হয়। সারা দেশ থেকে প্রায় ১৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করে। বাছাই প্রক্রিয়া শেষে ৬ হাজার প্রতিযোগীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

 

সমাপনী অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত ২০ জনের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমি ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে তরুণদের মাঝে নতুন উদ্দীপনা লক্ষ্য করছি। এখানে একইসঙ্গে চাকরি দেওয়া ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০১৮ সালের মধ্যে আমরা ‘মিশন ওয়ান বিলিয়ন ডলার’ লক্ষ্য পূরণে কাজ করছি। তরুণরাই এ লক্ষ্য পূরণের মূল সেনানী হবে।’

 

দিনব্যাপী ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে কাজী এম আহমেদ, জি. সামদানি ডন, আয়মান সাদিক, জিশু তরফদার, রুশদিনা খান, মঈনউদ্দীন চৌধুরী, মাইক কাজী, জন রিডেল রিসোর্স পার্সন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন ওয়াহিদ শরীফ ও মুনির হাসান প্রমুখ।

নিয়োগপ্রাপ্তরা কাজী আইটির ঢাকার নিকুঞ্জের প্রধান অফিস, ধানমন্ডির শাখা অফিস ও রাজশাহী অফিসে ডে এবং নাইট শিফটে কাজের সুযোগ পাবেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত।

ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে চাকরি পেলো ২০ তরুণ

আপডেট টাইম : ০১:৪৭:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭

সারা দেশ থেকে আগত ৬ হাজার চাকরিপ্রার্থীর মিলনমেলার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হলো কাজী আইটি ক্যারিয়ার বুটক্যাম্প। ১১ নভেম্বর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে বুটক্যাম্পের আয়োজক ছিল কাজী আইটি সেন্টার লিমিটেড। সহযোগিতায় ছিল তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গর্ভন্যান্স প্রকল্প।

দিনব্যাপী ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৬ হাজার চাকরিপ্রার্থীকে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে সরাসরি ২০ তরুণকে কাজী আইটিতে চাকরির সুযোগ দেওয়া হয়। সারা দেশ থেকে প্রায় ১৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করে। বাছাই প্রক্রিয়া শেষে ৬ হাজার প্রতিযোগীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

 

সমাপনী অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত ২০ জনের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমি ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে তরুণদের মাঝে নতুন উদ্দীপনা লক্ষ্য করছি। এখানে একইসঙ্গে চাকরি দেওয়া ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০১৮ সালের মধ্যে আমরা ‘মিশন ওয়ান বিলিয়ন ডলার’ লক্ষ্য পূরণে কাজ করছি। তরুণরাই এ লক্ষ্য পূরণের মূল সেনানী হবে।’

 

দিনব্যাপী ক্যারিয়ার বুটক্যাম্পে কাজী এম আহমেদ, জি. সামদানি ডন, আয়মান সাদিক, জিশু তরফদার, রুশদিনা খান, মঈনউদ্দীন চৌধুরী, মাইক কাজী, জন রিডেল রিসোর্স পার্সন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন ওয়াহিদ শরীফ ও মুনির হাসান প্রমুখ।

নিয়োগপ্রাপ্তরা কাজী আইটির ঢাকার নিকুঞ্জের প্রধান অফিস, ধানমন্ডির শাখা অফিস ও রাজশাহী অফিসে ডে এবং নাইট শিফটে কাজের সুযোগ পাবেন।