ঢাকা ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

সোমালিয়ায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১১

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে গতকাল বৃহস্পতিবার এক শক্তিশালী বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১১ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আল-শাবাব দাবি করেছে, তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল মক্কা আল মুকাররমা হোটেল। তবে পুলিশের ভাষ্য, জঙ্গিরা একজন বিচারপতিকে হত্যার জন্য বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়।

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, আপিল আদালতের প্রধান বিচারপতি আবশির ওমরের বাসভবনের কাছে গাড়িবোমাটি বিস্ফোরিত হয় এবং বাড়ির বাইরে মোতায়েনকৃত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বন্দুকধারীদের গুলি বিনিময় হয়েছে। তিনি আরও জানান, হামলায় ১১ জন নিহত এবং কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হয়েছেন।

মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, বিস্ফোরণের পরই কমপক্ষে চার বন্দুকধারী আশপাশের ভবন ও দোকানে গুলিবর্ষণ করেন। এ সময় কাছাকাছি থাকা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও হোটেলের গার্ডদের সাথে তাদের সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণে বিচারপতি ওমরের বাড়ির ছাদের একাংশ উড়ে যায়।

আল-কায়েদার সাথে সম্পর্ক থাকা আফ্রিকার সবচেয়ে মারাত্মক ইসলামি চরমপন্থী গোষ্ঠী আল-শাবাব হামলার দায় স্বীকার করে জানিয়েছে, হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল মক্কা আল মুকাররমা হোটেল, পাশের বিচারপতির বাড়ি নয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সাবির আবদি জানান, হোটেলের গুরুতর ক্ষতি হয়েছে এবং ভেতরে থাকা অনেকে আহত হয়েছেন। হামলায় মক্কা আল মুকাররমা সড়কে থাকা অনেক গাড়ি আগুনে পুড়ে যায়। মোগাদিসুর ব্যস্ত এ এলাকায় বিভিন্ন হোটেল ও রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এপি, ইউএনবি।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

সোমালিয়ায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১১

আপডেট টাইম : ০৬:৩৪:০৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে গতকাল বৃহস্পতিবার এক শক্তিশালী বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১১ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আল-শাবাব দাবি করেছে, তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল মক্কা আল মুকাররমা হোটেল। তবে পুলিশের ভাষ্য, জঙ্গিরা একজন বিচারপতিকে হত্যার জন্য বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়।

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, আপিল আদালতের প্রধান বিচারপতি আবশির ওমরের বাসভবনের কাছে গাড়িবোমাটি বিস্ফোরিত হয় এবং বাড়ির বাইরে মোতায়েনকৃত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বন্দুকধারীদের গুলি বিনিময় হয়েছে। তিনি আরও জানান, হামলায় ১১ জন নিহত এবং কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হয়েছেন।

মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, বিস্ফোরণের পরই কমপক্ষে চার বন্দুকধারী আশপাশের ভবন ও দোকানে গুলিবর্ষণ করেন। এ সময় কাছাকাছি থাকা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও হোটেলের গার্ডদের সাথে তাদের সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণে বিচারপতি ওমরের বাড়ির ছাদের একাংশ উড়ে যায়।

আল-কায়েদার সাথে সম্পর্ক থাকা আফ্রিকার সবচেয়ে মারাত্মক ইসলামি চরমপন্থী গোষ্ঠী আল-শাবাব হামলার দায় স্বীকার করে জানিয়েছে, হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল মক্কা আল মুকাররমা হোটেল, পাশের বিচারপতির বাড়ি নয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সাবির আবদি জানান, হোটেলের গুরুতর ক্ষতি হয়েছে এবং ভেতরে থাকা অনেকে আহত হয়েছেন। হামলায় মক্কা আল মুকাররমা সড়কে থাকা অনেক গাড়ি আগুনে পুড়ে যায়। মোগাদিসুর ব্যস্ত এ এলাকায় বিভিন্ন হোটেল ও রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এপি, ইউএনবি।