ঢাকা ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

অনিয়মের সঙ্গে কোনো আপোষ নয় : সিইসি

আলোর জগত ডেস্ক :  প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, অনিয়ম হলে প্রয়োজনে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে। কিন্তু অনিয়মের সঙ্গে কোনো আপোষ করা হবে না। আজ বুধবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের এক সভায় তিনি একথা বলেন।

নুরুল হুদা বলেন, নির্বাচনে কে কোন দলের বা গোষ্ঠীর তা দেখা হবে না। সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি বদ্ধপরিকর।

অনিয়মের ব্যাপারে আপোষ করা হবে না জানিয়ে সিইসি বলেন, প্রয়োজনে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে। কিন্তু নির্বাচনে কোনো অনিয়মের সঙ্গে আপোষ করা হবে না। মানুষ ভোট দিবে তার পছন্দের প্রার্থীকে, সেই প্রার্থীই ভোটে নির্বাচিত হবেন।

নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার যে অভিযোগ রয়েছে তা বেশিরভাগই ক্ষেত্রেই সঠিক নয় বলেও দাবি করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। এসময় নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা জানান তিনি।

কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে সিইসি বলেন, এজেন্টদেরকে নিয়ে সব সময় আপনাদেরকে বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। নির্বাচনে প্রার্থীরা যাতে ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট দেন সে জন্য তাদেরকে উৎসাহিত করবেন। এজেন্টরা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এজেন্ট থাকা এবং যাওয়ার দায়িত্ব তো আপনারা নিতে পারেন না। প্রার্থীদেরকে উৎসাহিত করবেন যাতে তারা এজেন্ট দেয়। এজেন্টরা যাতে সেখানে নিরাপদে নির্ভয়ে থাকতে পারে এটা দেখবেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

অনিয়মের সঙ্গে কোনো আপোষ নয় : সিইসি

আপডেট টাইম : ০৮:২৯:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :  প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, অনিয়ম হলে প্রয়োজনে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে। কিন্তু অনিয়মের সঙ্গে কোনো আপোষ করা হবে না। আজ বুধবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের এক সভায় তিনি একথা বলেন।

নুরুল হুদা বলেন, নির্বাচনে কে কোন দলের বা গোষ্ঠীর তা দেখা হবে না। সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি বদ্ধপরিকর।

অনিয়মের ব্যাপারে আপোষ করা হবে না জানিয়ে সিইসি বলেন, প্রয়োজনে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে। কিন্তু নির্বাচনে কোনো অনিয়মের সঙ্গে আপোষ করা হবে না। মানুষ ভোট দিবে তার পছন্দের প্রার্থীকে, সেই প্রার্থীই ভোটে নির্বাচিত হবেন।

নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার যে অভিযোগ রয়েছে তা বেশিরভাগই ক্ষেত্রেই সঠিক নয় বলেও দাবি করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। এসময় নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা জানান তিনি।

কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে সিইসি বলেন, এজেন্টদেরকে নিয়ে সব সময় আপনাদেরকে বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। নির্বাচনে প্রার্থীরা যাতে ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট দেন সে জন্য তাদেরকে উৎসাহিত করবেন। এজেন্টরা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এজেন্ট থাকা এবং যাওয়ার দায়িত্ব তো আপনারা নিতে পারেন না। প্রার্থীদেরকে উৎসাহিত করবেন যাতে তারা এজেন্ট দেয়। এজেন্টরা যাতে সেখানে নিরাপদে নির্ভয়ে থাকতে পারে এটা দেখবেন।