ঢাকা ০৪:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম :

পাঁচ বছরের মধ্যে সব বিভাগে হবে ক্যান্সার হাসপাতাল

ফাইল ছবি

আলোর জগত ডেস্ক :   নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে দেশের সব বিভাগে একটি করে ১০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শেষ করবে সরকার বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, অবকাঠামো নির্মাণের পাশাপাশি প্রতি বিভাগে ক্যান্সার চিকিৎসার পূর্ণাঙ্গ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপনসহ প্রশিক্ষিত জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

সারা দেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যার তুলনায় চিকিৎসা ব্যবস্থার অপ্রতুলতার ব্যবধান ঘোচাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে এ অঙ্গীকার সংযুক্ত করা হয়।দীর্ঘমেয়াদি ও ব্যয়বহুল এই চিকিৎসার সহজলভ্যতা বিভাগ পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারলে সারাদেশের লাখ লাখ মানুষ কম খরচে এই সেবা পাবে।

গতকাল সোমবার রাজধানীর মহাখালীর জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি হাসপাতালের লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট, অত্যাধুনিক এমআরআই, সিটি স্ক্যান মেশিন এবং ডে কেয়ার কেমোথেরাপির কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের উদ্বোধন করেন।

ক্যান্সার ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মোয়াররফ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপিকা ডা. নাসিমা সুলতানা, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান মিলন প্রমুখ।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে চিকিৎসার চেক হস্তান্ত, সাবেক এম পি নুরুল আমিন রুহুল

পাঁচ বছরের মধ্যে সব বিভাগে হবে ক্যান্সার হাসপাতাল

আপডেট টাইম : ০৫:০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আলোর জগত ডেস্ক :   নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে দেশের সব বিভাগে একটি করে ১০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শেষ করবে সরকার বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, অবকাঠামো নির্মাণের পাশাপাশি প্রতি বিভাগে ক্যান্সার চিকিৎসার পূর্ণাঙ্গ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপনসহ প্রশিক্ষিত জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

সারা দেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যার তুলনায় চিকিৎসা ব্যবস্থার অপ্রতুলতার ব্যবধান ঘোচাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে এ অঙ্গীকার সংযুক্ত করা হয়।দীর্ঘমেয়াদি ও ব্যয়বহুল এই চিকিৎসার সহজলভ্যতা বিভাগ পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারলে সারাদেশের লাখ লাখ মানুষ কম খরচে এই সেবা পাবে।

গতকাল সোমবার রাজধানীর মহাখালীর জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি হাসপাতালের লিকুইড অক্সিজেন প্ল্যান্ট, অত্যাধুনিক এমআরআই, সিটি স্ক্যান মেশিন এবং ডে কেয়ার কেমোথেরাপির কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের উদ্বোধন করেন।

ক্যান্সার ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মোয়াররফ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপিকা ডা. নাসিমা সুলতানা, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান মিলন প্রমুখ।